শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বার ২০২২   Friday, 30 September 2022.  



 আন্তর্জাতিক


আমাদের প্রতিদিন

 Aug-31-2020 03:46:22 PM


 

No image


ঢাকা অফিস:

চীনের সাথে ভারতের সীমান্ত সঙ্ঘাত অব্যাহত রয়েছে এখনও। এরই মধ্যে লাদাখে ফের প্রবেশের চেষ্টা করেছে চীনাবাহিনী। গত ২৯ ও ৩০ অগস্ট রাতে চীনা বাহিনী আবারো প্যাংগঙ্গে সীমান্ত দিয়ে প্রবেশের চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ করেছে ভারত। আজ সোমবার দেশটির কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এমন তথ্য জানানো হয়। খবর আনন্দবাজারের।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর জনসংযোগ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনার মাধ্যমে পূর্ব লাদাখে সঙ্ঘাত পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে যে ঐক্যমত্যে পৌঁছনো গিয়েছিল, ২৯-৩০ অগস্ট রাতে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) তা লঙ্ঘন করেছে। স্থিতাবস্থা নষ্ট করতে সেখানে প্ররোচনামূলক সামরিক পদক্ষেপ নিয়েছে তারা।

চীনের তরফে ঠিক কী ধরনের সামরিক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, তা যদিও পরিষ্কার করেনি ভারতীয় বাহিনী। ভরতীয় বিবৃতিতে বলা হয় বলেন, ‘‘প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে চীনা বাহিনীর এই আগ্রাসন প্রতিহত করতে সক্ষম হয় ভারতীয় বাহিনী। সেখানে নিজেদের অবস্থান মজবুত করা হয়েছে। একতরফাভাবে চীন পরিস্থিতি বদলানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের সেই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।’’

চলতি বছরে এপ্রিল-মে নাগাদ লাদাখে প্রথম সঙ্ঘর্ষে জড়ায় ভারতীয় ও চীনা বাহিনী। পরে গত ১৫ জুন পরিস্থিতি চরম আকার ধারণ করে। চীনা বাহিনীর অনুপ্রবেশ ঘিরে গালওয়ান উপত্যকায় দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সঙ্ঘর্ষ বাধে। তাতে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান প্রাণ হারান। চীনের তরফ থেকে হতাহতের কোন তথ্য জানানো হয়নি।

তার পর থেকে দুই দেশের মধ্যে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে। প্যাংগং হ্রদের ফিঙ্গার ৮ এলাকার ঢাল থেকে ফিঙ্গার ৫ পর্যন্ত এখনও অবস্থান রয়েছে চীনা বাহিনীর। এই ফিঙ্গার ৮ এলাকাকেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি) হিসেবে ধরে ভারত। যদিও চীন ফিঙ্গার ৪ এলাকাকেই এলএসি বলে গন্য করে। চীনের বাধার মুখে এপ্রিল থেকে সেখানে নজরদারি চালানো বন্ধ করেছে ভারতীয় জওয়ানরা।



আজকের রংপুর


No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image






 

 

 

 

 

 
সম্পাদক ও প্রকাশক
মাহবুব রহমান
ইমেইল: mahabubt2003@yahoo.com