বুধবার, ২৯ জুন ২০২২   Wednesday, 29 June 2022.  



 বাংলাদেশ


আমাদের প্রতিদিন

 May-19-2022 07:41:47 PM


 

No image


নিজস্ব প্রতিবেদক:

ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত হওয়ায় রংপুর চিড়িয়াখানা থেকে তিনটি হরিণ বিক্রি করা হয়েছে। চট্টগ্রামের চকবাজার এলাকার গহর সিরাজ জামিল নামে এক সৌখিন ব্যবসায়ী সরকার নির্ধারিত মূল্য হিসেবে দেড় লাখ টাকায় হরিণ তিনটি কিনেছেন। হরিণগুলোর মধ্যে একটি পুরুষ ও দুটি মেয়ে হরিণ।

বুধবার (১৮ মে) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর আম্বর আলী তালুকদার। তিনি জানান, রংপুর চিড়িয়াখানার তিনটি শেডে ৩০-৪০টি হরিণের থাকার মতো জায়গা রয়েছে। করোনা মহামারিতে দীর্ঘসময় সরকারি নির্দেশে চিড়িয়াখানা বন্ধ রাখা হয়। ওই সময়ে কোলাহলমুক্ত নিরিবিলি প্রাকৃতিক পরিবেশ বিরাজ করছিল। গাছগাছালিতে ভরা বনজঙ্গলের নীরব, নিস্তব্ধ পরিবেশে খাঁচাবন্দী পশু-পাখির প্রজনন ক্ষমতা বেড়ে যায়। ঘোড়া, হরিণ, গাধা, বানর, ময়ূর, মদনটেকসহ আরও বেশকিছু প্রাণীর ঘরে এসেছে নতুন অতিথি।

রংপুর চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর আরও বলেন, প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়ে হরিণের সংখ্যা বেড়ে ৫৭-তে দাঁড়িয়েছে। সেখান থেকে চলতি মাসে ৩টি হরিণ বিক্রির ঘোষণা দেয় চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। এই ঘোষণার পর চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে রংপুর থেকে তিনটি হরিণ কিনেছেন এক ব্যবসায়ী।

রংপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানায়, ব্যবসায়ী গহর সিরাজ জামিল হরিণ তিনটি কেনার আগে চট্টগ্রাম বন বিভাগের অনুমতি নিয়ে সেখানকার চিড়িয়াখানায় যোগাযোগ করেন। কিন্তু চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানাতে অতিরিক্ত হরিণ না থাকায় সেখান থেকে রংপুর চিড়িয়াখানার মাধ্যমে হরিণ ক্রয়ের প্রস্তাব দেন।

এব্যাপারে হরিণ ক্রেতা চট্রগ্রামের ব্যবসায়ী গহর সিরাজ জামিল জানান, দীর্ঘদিনের শখ থেকে হরিণ ৩টি কিনেছেন। তবে এ জন্য তিনি হয়রানির শিকারও  হয়েছেন। চট্টগ্রামে আবেদনসহ অন্যান্য প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার অনেকদিন পর রংপুর চিড়িয়াখানা থেকে ৩টি হরিণ কেনার সুযোগ হয়েছে। এই ৩টি হরিণের মধ্যে ২টি মেয়ে ও ১টি পুরুষ হরিণ রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের (প্রাণিসম্পদ-২) এক প্রজ্ঞাপনে হরিণের দাম পুনঃনির্ধারণ করা হয়। এতে বলা হয়, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতির পরিপ্রেক্ষিতে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত প্রাণী বিক্রি করছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। এরই ধারাবাহিকতায় কিছু হরিণ বিক্রি করা হচ্ছে। এর আগে হরিণের দাম ৭০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হলেও তা কমিয়ে নতুন করে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে। বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় শুধুমাত্র হরিণ ও ময়ূর এই দুটি প্রাণী বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে।


No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image

আজকের রংপুর


No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image






 

 

 

 

 

 
সম্পাদক ও প্রকাশক
মাহবুব রহমান
ইমেইল: mahabubt2003@yahoo.com