পীরগাছায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে দোকান ভেঙ্গে স্থাপনা নির্মাণের চেষ্টা: বন্ধ করে দিলো পুলিশ

আমাদের প্রতিদিন
2024-02-25 18:40:38

পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধি:

রংপুরের পীরগাছায় দোকান ঘর ভেঙ্গে জমি দখল করার অভিযোগ উঠছে একটি পরিবারের বিরুদ্ধে। আদালতে বিচারাধীন মামলা ও ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে প্রকাশ্যে একটি দোকান ঘর ভেঙ্গে নিয়ে ওই স্থানে স্থাপনা তৈরির কাজ গতকাল রোববার বন্ধ করে দিয়েছে পীরগাছা থানা পুলিশ। এ নিয়ে উভয় পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের তালুক কান্দি কাবিলাপাড়ায়।

থানায় দেয়া অভিযোগে জানা গেছে, ওই ইউনিয়নের কান্দি নিজপাড়া গ্রামের মৃত ফুল মাহমুদের ছেলে শাহ আলম পৈত্রিক সুত্রে পাওয়া কান্দি কাবিলাপাড়া মৌজার জেএল নং-২৬৫ এর সিএখতিয়ান নং-২৭০, এসএ খতিয়ান নং-৩১৬ এর ৪৩৫ দাগের ২১ শতাংশ জমির মধ্যে ২ শতাংশ জমিতে দোকান ঘর জীবিকা নির্বাহ করতো। সম্প্রতি ওই জমি নিয়ে আদালতে মিছ পিটিশন নং-৭১৩/২০২২ এবং ১৪৪ ও ১৪৫ ধারা জারি করা হয়। এদিকে ওই গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল প্রামানিকের ৫ ছেলে গোলাম রব্বানী, প্রিন্স মিয়া, পিন্টু মিয়া, পলাশ মিয়া ও বাবু মিয়া ওই জমিটি দখলের নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তারা গত শনিবার দুপুরে প্রকাশ্যে শাহ আলমের দোকান ঘর ভেঙ্গে বাড়িতে নিয়ে যান। গতকাল রোববার ওই জমিতে স্থাপনা তৈরির সময় ৯৯৯ নম্বরে খবর পেয়ে পীরগাছা থানা পুলিশ স্থাপনা তৈরির কাজ বন্ধ করে দেন।

অভিযোগকারী শাহ আলম বলেন, আদালতে মামলা ও ১৪৪ ধারা জারি থাকার পরও তারা আমার দোকান ঘর ভেঙ্গে নিয়ে গেছে। ঘরে থাকা প্রায় ৮০ হাজার টাকার মালামালও নিয়ে গেছে।

জানতে চাইলে গোলাম রব্বানী বলেন, আমরাই ১৪৪ ধারার আবেদন করেছিলাম। আমাদের জমি শাহ আলম দীর্ঘদিন ধরে দখলে রেখেছে। তাই আমরা দোকান ভেঙ্গে জমি খালি করেছি।

এ বিষয়ে পীরগাছা থানার এএসআই আলী আজগার  বলেন, আমরা ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থাপনার কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। উভয় পক্ষকে শান্তি শৃংঙ্খলা বজায় রেখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বা আদালতের রায়ের অপেক্ষায় থাকার জন্য বলা হয়েছে।