নবাবগঞ্জে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলেকে খাবার খাওয়াতে গিয়ে নিহত হলেন বাবা

আমাদের প্রতিদিন
2023-12-03 22:34:59

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে রাতের খাবার খাওয়াতে গিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলের লাঠির আঘাতে খুন হয়েছেন বাবা আবুল কাসেম (৭০)। বাবাকে হত্যার অভিযোগে ছেলে মাসুদ রানা (২৭) কে আটক করেছে থানা পুলিশ। নিহত আবুল কাসেম উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের কালীরহাট চামুন্ডাই গ্রামের মৃত মোজাহার আলীর ছেলে।

থানা সুত্রে জানা গেছে, নবাবগঞ্জ উপজেলার একই ইউনিয়নের শালঘরিয়া (ডাঙ্গাপাড়া) গ্রামে মাসুদ রানাসহ তার বাবা মা ও এক ভাই বসবাস করত। বিগত ৫/৬ বছর আগে মাসুদ রানা মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। তাকে চিকিৎসা করালে কিছু দিন সুস্থ্য থাকত, আবার মাঝে মাঝে অস্বাভাবিক আচরন করত। অস্বাভাবিক থাকা অবস্থায় মাসুদ প্রায় তার বাবা মা ও ভাইকে মারপিট করত। ফলে বিগত ২/৩ বছর থেকে তার বাবা মা ও ভাই প্রাণ রক্ষায় পার্শ্ববর্তী কালীরহাট চামুন্ডা গ্রামে গিয়ে বসবাস করছেন। একা বাড়ীতে থাকায় প্রতিদিনই তার বাবা রান্না করা খাবার দিয়ে আসত ছেলে মাসুদ রানার বাড়ীতে। প্রতিদিনের ন্যায় গত বৃহস্পতিবার (২৪ আগষ্ট) রাত ১০টায় আফতাবগঞ্জ বাজার থেকে আবুল কাসেম তার ছেলে মাসুদ রানার বাড়ীতে খাবার দিতে যায়।  কিন্তু খাবার দিয়ে রাতে বাড়ীতে ফেরত না আসলে আবুল কাসেমের স্ত্রী মাহমুদা বেগম শুক্রবার (২৫ আগষ্ট) ভোরে স্বামীর খোজ নিতে তার ছেলের বাড়ীতে যায়। সেখানে গিয়ে দেখতে পায় তার স্বামী রক্তাক্ত ও মৃত অবস্থায় বাড়ীর আঙ্গিনায় পড়ে আছে। এ সময় মাহমুদার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে ঘটনা দেখে পুলিশে সংবাদ দেয়। ভারসাম্যহীন ছেলে তার বাবাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে হত্যা করেছে বলে ধারনা করেন এলাকাবাসী। 

নবাবগঞ্জ থানার ওসি তাওহীদুল ইসলাম বলেন, মৃতদেহের সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। অপর দিকে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার দুপুরে ছেলে মাসুদ রানাকে পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়ী উপজেলার রেল স্টেশন এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।