ঘোড়াঘাটে ব্রিজ নির্মানের ৪ মাসেই ধ্বসে পড়ছে অ্যাপ্রোচ সড়ক

আমাদের প্রতিদিন
2024-02-28 21:30:04

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলায় মাইলা নদীর কামানডুবা ঘাটে ব্রিজ নির্মাণের ৪ মাস যেতে না যেতেই ধ্বসে পড়তে শুরু করেছে নির্মিত ব্রিজটির দু'পাশের অ্যাপ্রোচ সড়ক। এরই মধ্যে ধসে পড়েছে ব্রিজটির দু'পাশের ব্লক।

জানা গেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে প্রোগ্রাম ফর সাপোর্টিং রুরাল ব্রিজস প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ঘোড়াঘাট উপজেলার মাইলা নদীর কামানডুবা ঘাটে ৭২ মিটার দৈর্ঘ্যের আরসিসি গার্ডার ব্রিজটির নির্মানকাজ ৪ কোটি ৪১ লাখ ৫৬ হাজার ৩'শ ৩৯ টাকা চুক্তিমূল্যে ২০২০ সালের ৩০ জুলাই শুরু হয়। এই ব্রিজটির নির্মাণকাজ শুরু করেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ইউনিক কনস্ট্রাকশন প্রাইভেট লিমিটেড ও মেসার্স খান এন্টারপ্রাইজ এন্ড আরএস এন্টারপ্রাইজ। কার্যাদেশ অনুযায়ী ব্রিজটি নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা ছিলো ২০২২ সালের ৫ মার্চ। কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সময়মতো কাজ শেষ করতে না পারায় নির্মানকাজের সময় বর্ধিত করে ২০২৩ সালের জুন মাসে নির্মাণকাজ শেষ করেন।

নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার চার মাস যেতে না যেতেই ব্রিজের অ্যাপ্রোচ সড়কের মাটি দেবে গেছে এবং ধ্বসে পড়েছে ব্রিজের দুপাশের বসানো বøকগুলো। নির্মিত হ্যারিংবোম দেবে গিয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। স্থানীয়রা জানায়, ব্রিজের গাইড ওয়াল নির্মাণের কাজে কোনো ধরনের ভিত্তি না বসিয়ে আলগা মাটিতে ওয়াল নির্মাণ, ব্রিজের নিচ থেকে মাটি খনন, ব্রিজের দু'ধার ও রাস্তা নির্মাণে মাটি দাবানোর জন্য সঠিকভাবে রোলার ব্যবহার না করায় এই বর্ষা মৌসুমে আলগা মাটি দেবে গিয়ে ধ্বসে পড়তে শুরু করেছে।

এ ব্যাপারে ঘোড়াঘাট উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ সফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এই ব্রিজের কাজের জামানতের বিল এখনো ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হয়নি। জামানতের টাকা ফেরত দেওয়ার আগেই সব ঠিক করে আমারা বুঝিয়ে নিবো। তিনি আরও জানান, বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষসহ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে অবগত করেছি।