চোরাগুপ্তা পিকেটিংয়ে বিএনপি, নৈরাজ্য ঠেকাতে সরব আ’লীগ

আমাদের প্রতিদিন
2024-02-27 13:55:04

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিএনপি-জামায়াতসহ সমমনা দলগুলোর ডাকা ৭২ ঘণ্টার অবরোধের শেষ দিনেও রংপুরে চোরাগুপ্তা পিকেটিং ও টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে বিএনপিসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। গ্রেপ্তার এড়াতে একসময়ের জোটমিত্র জামায়াতে ইসলামীর কৌশল অনুসরণ করে ভোরে কিবাং গভীর রাতে বিক্ষিপ্তভাবে অবরোধে মাঠে থাকার চেষ্টা করে দলটির নেতাকর্মীরা।্

আজ বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) ভোর রাত থেকে সকাল পর্যন্ত রংপুর মহানগরসহ জেলার বিভিন্ন সড়কে ঝটিকা মিছিল ও পিকেটিং করে বিএনপি ও তাদের সহযোগি অঙ্গ সংগঠন।

রংপুর মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ জহির আলম নয়ন জানান, ভোর রাত থেকে সকাল পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে মহানগর বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা বিক্ষিপ্ত ভাবে পিকেটিং করে। ভোরে রংপুর-বদরগঞ্জ সড়ক, রংপুর-গঙ্গাচড়া, নগরীর বটতলা মোড়ে অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছেন তারা। এছাড়াও সকালে নগরীর স্টেশন রোড পানামা মোড় এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে মহানগর ছাত্রদল।

অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা অবরোধে যেকোনো সহিংসতা, নৈরাজ্য মোকাবিলায় মাঠে সরব ভূমিকা রাখছে সরকারদলীয় সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার দেশবিরোধী অপরাজনীতির বিরুদ্ধে শান্তি সমাবেশ করেছে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ।

দুপুরে মহানগরীর মর্ডান মোড়ে অনুষ্ঠিত শান্তি সমাবেশে অংশ নেয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগ, যুব মহিলালীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ডা. দেলোয়ার হোসেন, যুগ্ম আহ্বায়ক আবুল কাশেম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাজেদ আলী বাবুল, এ্যাড আনোয়ারুল ইসলাম, তাজহাট থানা আ'লীগের সভাপতি ইমাদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া আলম শিপলু প্রমুখ।

যেকোনো মূল্যে দেশবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র রুখতে রাজপথ না ছাড়া ঘোষণা দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা নস্যাৎ করতে স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি-জামাত আবারও মাথা চাড়া দিয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যেন সুষ্ঠুভাবে সম্পূর্ণ না হয় সেজন্য যে বিদেশি ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে তার বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

এদিকে বিএনপি-জামায়াতের ডাকে সারা দেশের মতো রংপুরেও ঢিলেঢালাভাবে অবরোধ পালিত হয়েছে। দিনের শুরুতে সড়কে খুব বেশি যানবাহন চলাচল না করলেও বেলা বাড়ার পর রংপুর মহানগরসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ভারি ও হালকা যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। অবরোধের তৃতীয় দিন বিকেল পর্যন্ত যাত্রী সংকটে রংপুর থেকে ঢাকাগামী দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ ছিল।

হরতাল ও অবরোধে চারদিনে রংপুর মহানগরের বাহিরে জেলার আট থানা এলাকা থেকে বিএনপি-জামায়াতের ২৫ জনকে নাশকতার অভিযোগ গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি এন্ড মিডিয়া) মোঃ ইফতে খায়ের আলম।

অন্যদিকে অবরোধের তৃতীয় দিনে রংপুর মহানগরীতে তিন জামায়াত কর্মীকে গ্রেপ্তার করার তথ্য নিশ্চিত করেছেন আরপিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) মো: আবু মারুফ হোসেন।

রংপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) ফেরদৌস আলী চৌধুরী বলেন, অবরোধে মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। এরপরও শহর ও মহাসড়কে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানান তিনি।