রংপুরে মোটরসাইকেল ৪৮, ভারী যানবাহনে ২৪ ঘণ্টা চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

আমাদের প্রতিদিন
2024-04-15 22:10:46

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে রংপুরে ৪৮ ঘণ্টা মোটরসাইকেল ও ২৪ ঘণ্টা ভারী যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ।

নিষেধাজ্ঞায় আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মনিরুজ্জামান। মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৫ টার দিকে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

গণবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-২০২৪ এর পরিপত্রের প্রেক্ষিতে রংপুর মহানগরী আইন ২০১৮ এর ২৭, ২৮, ২৯, ৩০, ৩১, ধারার বিধান মোতাবেক নির্বাচনী এলাকায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী ভোট গ্রহণের নির্ধারিত দিবসের পূর্ববর্তী মধ্যরাত অর্থাৎ ৬ জানুয়ারি দিবাগত মধ্যরাত ১২টা হতে ৭ জানুয়ারি দিবাগত মধ্যরাত ১২ টা পর্যন্ত যে কোনো ধরণের ভারী যানবাহনসহ ট্যাক্সি ক্যাব, পিকআপ, মাইক্রোবাস, ট্রাক ইত্যাদি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা ও একইভাবে ৫ জানুয়ারি দিবাগত মধ্যরাত ১২ টা হতে ৮ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে গণবিজ্ঞপ্তিতে প্রতিবন্ধী ভোটারদের সহযোগিতায় নিয়োজিত গাড়ির ওপর নিষেধাজ্ঞা শিথিল রয়েছে।

নিষেধাজ্ঞামুক্ত থাকবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী, প্রশাসন, সাংবাদিক ও অনুমতিপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক, সেই সাথে কতিপয় জরুরী পরিসেবা যেমন-অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ ইত্যাদি কার্যক্রম পরিচালনা কাজে ব্যবহৃত থাকবে। এছাড়াও জাতীয় মহাসড়ক, জরুরী পণ্য, ওষুধ, খাদ্য ইত্যাদি দ্রব্যাদি সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরী প্রয়োজনে ব্যবহৃত যানবাহন, যেমন আত্মীয়-স্বজনের জন্য বিমানবন্দরে যাওয়া, বিমানবন্দর হতে যাত্রী বা আত্মীয়-স্বজনসহ নিজ বাসস্থানে অথবা আত্মীয়-স্বজনের বাসায় ফিরে যাওয়ার জন্য ব্যবহৃত যানবাহন (টিকিট বা অনুরূপ প্রদর্শন সাপেক্ষে) এবং দুরপাল্লা যাত্রী বহনকারী অথবা দুরপাল্লা যাত্রী হিসেবে স্থানীয় পর্যায়ে যাতায়াতের যেকোন যানবাহন।

এছাড়াও প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীর জন্য একটি প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীর নির্বাচনী এজেন্ট (যথাযথ নিয়োগপত্র/পরিচয়পত্র সাপেক্ষে) এর জন্য গাড়ি(জিপ, কার, মাইক্রোবাস ইত্যাদি ছোট আকৃতির যানবাহন) রিটার্নিং অফিসারের অনুমোদন ও গাড়িতে স্টিকার প্রদর্শন সাপেক্ষে চলাচলের অনুমতি রয়েছে।

এছাড়াও নির্বাচন কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা/কর্মচারী অথবা অন্য কোন ব্যক্তির জন্য মোটরসাইকেল চলাচলের অনুমতি প্রদান সাপেক্ষে চলাচল করতে পারবে। সেই সাথে জাতীয় মহাসড়ক, আন্তঃজেলা বা মহানগর থেকে বাহির বা প্রবেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, মহাসড়ক ও প্রধান প্রধান রাস্তার সংযোগ সড়ক বা উক্তরূপ সকল রাস্তায় নিষেধাজ্ঞা শিথিলের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।