১৯ মাঘ, ১৪২৯ - ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ - 01 February, 2023
amader protidin

দেবরের আপত্তিকর মেসেজে সংসার ভাঙলো ভাবির: বিয়ের দাবিতে ৫দিন ধরে অনশন

আমাদের প্রতিদিন
3 weeks ago
71


 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলায় ভাবিকে আপত্তিকর এসএমএস বার্তা দিয়েছে দেবর। এর পরেই ভেঙ্গে গেছে ভাবির সংসার। এ ঘটনায় বিয়ের দাবিতে গত ৫দিন ধরে দেবরের বাড়ির সামনে অনশনে বসেছে ভাবি। দেবরের বাড়িতে অনশন করার ঘটনাটি ব্যাপক  তোলপাড়ের জন্ম দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বদরগঞ্জ পৌর শহরের মন্ডলপাড়া মহল্লায়।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১৮ বছর পূর্বে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার ইদ্রিস আলীর মেয়ে ইরিনা জান্নাত ইভার সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় রংপুরের বদরগঞ্জ পৌর শহরের মন্ডলপাড়া গ্রামের আব্দুল করিমের পুত্র মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে। মুস্তাফিজার দম্পতির ঘরে নয় বছরের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। সংসার করা কালীন সময় মুস্তাফিজারের স্ত্রী ইভার প্রতি কু-নজর পড়ে তার আপন দেবর লিতুন মিয়া (২৮) এর। বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে দেবর লিতুন ভাবি ইভাকে একাধিক বার আপত্তিকর এসএমএস দেয়। তার এসব এসব আপত্তি করে  প্রত্যাখ্যান করে আসছিল ইভা। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত হয়নি ইভার দেবর লিতুন। নানাভাবে ভাবিকে কু প্রস্তাব দেয় সে। ঘটনাটি গৃহবধু ইভার শাশুড়ি জানতে পেরে তার ছেলে মোস্তাফিজারকে ঘটনাটি জানালে স্বামী মোস্তাফিজার ইভাকে তার বাবার বাড়ি ঠাকুরগাঁও পাঠিয়ে দেয়। সেখানে দু'বছর অবস্থান করার পর গত বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) দুপুর থেকে গৃহবধু ইরিনা জান্নাত ইভা দেবর লিতুনের বাসার সামনে বিয়ের দাবিতে অনশনে বসে ভাবি ইভা। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত লিতুন তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছে।

গতকাল সোমবার ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, লিতুনের বাড়ির মূল গেট ভিতর থেকে বন্ধ করা। গেটের সামনে গৃহবধূ ইভা তার নয় বছরের শিশু সন্তানকে বসে আছেন। প্রচন্ত ঠান্ডায় শীতে কাঁপতে তারা।

এসময় বিয়ের দাবিতে বসা ইভা সাংবাদিকদের জানান, আমার সংসার ভেঙ্গেছে দেবর লিতুন মিয়া। সে যদি আমাকে বিয়ে না করে তাহলে এখানেই আমি আত্মহত্যা করবো বলে ঘোষণা দেয় ইভা। এ ঘটনায় গত শুক্রবার দেবরের বিরুদ্ধে বাদি হয়ে বদরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। কিন্তুু অজ্ঞাত কারণে পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি।

গ্রামবাসীরা জানায়, ভুক্তভোগী এই নারী থানায় অভিযোগ করলেও এখন পর্যন্ত কোন রকমের ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি পুলিশ।ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য জনপ্রতিনিধি সহ মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। আইনি সহায়তা না পাওয়ার সংশয় রয়েছে।

এদিকে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য ক্ষমতাসীন দলের একজন রাজনৈতিক নেতা জনপ্রতিনিধ নেপথ্য থেকে কলকারী নারছেন এ বিষয়টি বদরগঞ্জে অনেকটাই খোলাসা হয়েছে।

এব্যাপারে বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাবিব গণমাধ্যমকে বলেন, ভাবিকে দেয়া দেবরের এসএমএস গুলো অনেক পুরনো এখানে কি ব্যবস্থা নেবো। তারপরও বিষয়টি দেখছি।

 

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়