১৯ মাঘ, ১৪২৯ - ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ - 01 February, 2023
amader protidin

প্রস্তুত ইজতেমা ময়দান আসছেন মুসল্লিরা

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
33


 

ঢাকা অফিস:

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দুই বছর বন্ধের পর আসন্ন ইজতেমাকে ঘিরে টঙ্গী ও আশপাশের এলাকায় ধর্মীয় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। শুক্রবার ফজরের নামাজের পর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব, তবে মঙ্গলবার বিকেল থেকেই ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেছেন।

ইজতেমার আয়োজকরা জানান, ১৬০ একর জায়গার বিশাল ময়দানে শামিয়ানা টানানোর কাজ প্রায় শেষ। বৈদ্যুতিক বাতি, মাইক, জেনারেটর সংযোগ, পানি সরবরাহ ব্যবস্থাসহ সব আনুষঙ্গিক কাজও শেষ হয়েছে।

ইজতেমা মাঠে প্রবেশের জন্য ১৩টি প্রবেশপথ তৈরি করা হয়েছে। এর মধ্যে ৮টি মূল প্রবেশপথের পাশাপাশি তুরাগ নদের ওপর সেনাবাহিনীর সদস্যরা তৈরি করছেন ৫টি পন্টুন ব্রিজ, যা দিয়ে সাময়িকভাবে মুসল্লিরা এপার থেকে ওপারে যাতায়াত করতে পারবেন।

আয়োজকরা আরও জানান, বুধবার থেকে মুসল্লিদের সংখ্যা আরও বাড়বে। প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মুসল্লিদের এ ঢল অব্যাহত থাকবে। প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেবেন মাওলানা যোবায়েরের অনুসারীরা। চার দিন বিরতি দিয়ে মাওলানা সা’দ কান্ধলভীর অনুসারীরা ২০ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্বে অংশ নেবেন।

ইজতেমা ময়দান ঘুরে দেখা যায়, ময়দানের পশ্চিম পাশে তুরাগ নদের পূর্ব পাড়ে নামাজের মিম্বার এবং উত্তর-পশ্চিম দিকে বিদেশি মেহমানদের জন্য নির্ধারিত কামরার পাশে মূল বয়ান মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। এ ছাড়া শামিয়ানা টানানো, বিদ্যুৎ ও প্রচারযন্ত্র সংযোগের জন্য তার টানানোসহ তাশকিল কামরা, জুড়নেওয়ালি জামাতের কামরা, প্রতিবন্ধীদের বয়ান শোনার আলাদা কামরা তৈরি করা হয়েছে।

ময়দানের ভেতরের প্রবেশপথগুলো ইট-বালি দিয়ে সংস্কার করা হচ্ছে। দলে দলে টুপি-পাঞ্জাবি পরে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা বিভিন্ন খিত্তায় অবস্থান নিচ্ছেন।

প্রতি বছরের মতো এবারও উর্দু ভাষায় বয়ান করা হবে এবং বিভিন্ন দেশ থেকে আসা মুসল্লিদের সুবিধার্থে বয়ানের সঙ্গে সঙ্গে বাংলা ও আরবি ভাষায় তরজমা করা হবে।

জামালপুর থেকে এক শ জনের জামাত নিয়ে ময়দানে আসা আলহাজ আকরাম হোসেন বলেন, ‘ইজতেমার শুরু থেকে প্রতি বছরই আসতাম। গত দুই বছর করোনার জন্য ইজতেমায় আসা হয়নি।

‘ময়দানে জায়গা পেতে সমস্যা হয় বলে এবার আগেই চলে এসেছি। ইজতেমা শুরুর আগে ময়দানেই আল্লাহর ইবাদত বন্দেগি করব এবং ইজতেমার মাঠ প্রস্তুতির কাজে শরিক হব।’

সর্বশেষ

জনপ্রিয়