১৯ মাঘ, ১৪২৯ - ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ - 01 February, 2023
amader protidin

পাটগ্রামে ট্রেনে কাটা পড়ে মা-মেয়ে ও ছেলের আত্নহত্যা নিয়ে ধুম্রজাল : তদন্তে নেমেছে পুলিশ

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
95


লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ট্রেনে কাটা পড়ে মা ও মেয়ে আত্নহত্যার ঘটনায় আহত ছেলে তৌহিদও মারা গেছেন। শুক্রবার বিকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে সকালে ওই উপজেলার বুড়িমারী-পাটগ্রাম রেলপথের ঘুন্টি নামক এলাকায় এ দূঘর্টনা ঘটে। ওই ঘটনায় ঘটনাস্থলে মা ও মেয়ের মৃত্যু হলেও ছেলে তৌহিদ গুরুত্বর আহত হয়। এক সাথে মা-ছেলে ও মেয়ে’র আত্নহত্যা নিয়ে ধুম্ররজাল দেখা দিয়েছে। পুলিশ ধারনা করছেন, পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে সুমি তার দুই ছেলে মেয়েকে নিয়ে আত্নহত্যা করতে পারে।

নিহতরা হলেন, ওই উপজেলার ধবলসুতি রহমানপুর এলাকার রাশেদুজ্জামানের স্ত্রী সুমি আক্তার (২৬), তার মেয়ে তাসমিরা তাবাসুম তাসিন (৬) ও ছেলে তৌহিদ (২)।  

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, লালমনিরহাট থেকে বুড়িমারী স্থলবন্দরগামী একটি ট্রেন ঘুন্টি নামক এলাকা পার হওয়ার সময় ট্রেনের নিচে মা ও তার ছেলে-মেয়ে পড়ে আত্নহত্যার চেষ্টা করেন। এতে মা সুমি বেগম ও মেয়ে তাসমিরা তাবাসুম তাসিনের ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়। এতে ছেলে তৌহিদ গুরুত্বর আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাটগ্রাম হাসপাতালে পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এদিকে এক সাথে মা-ছেলে ও মেয়ে’র আত্নহত্যা নিয়ে ধুম্ররজাল দেখা দিয়েছে। অনেকেই বলছে ঘটনাস্থল থেকে তার বাড়ির দুরুত্ব প্রায় দুই কিলোমিটার। ওই এলাকায় ছেলে-মেয়েদের সাথে নিয়ে যাওয়ার কোনো কারণ তারা দেখছেন না। একটি সুত্র জানান, সুমি আক্তার তার মেয়ে ও ছেলেকে নিয়ে আত্নহত্যা করেছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে স্বামী রাশেদুজ্জামানের সাথে ঝগড়া হয় সুমি আক্তারের। ওই সুত্রটি আরো জানান, ঝগড়ার এক পর্যায়ে সুমির শ্বাশুড়ী (রাশেদুজ্জামানের মা) সুমিকে মারধরও করেন। সকালে ওই ঘটনার জের ধরে ছেলে-মেয়েকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় সুমি আক্তার।

পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হয়েছি, সুমি আক্তার তার মেয়ে ও ছেলেকে নিয়ে আত্নহত্যা করেছেন। পারাপারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে তারা আত্নহত্যা করতে পারেন বলে মনে হচ্ছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়