১৯ মাঘ, ১৪২৯ - ০১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ - 01 February, 2023
amader protidin

সড়কের ওপর ১১ হাজার ভোল্টের ট্রান্সফরমার ঝুঁকিতে সাধারণ মানুষ

আমাদের প্রতিদিন
1 week ago
34


নীলফামারী প্রতিনিধি:

নীলফামারীর সৈয়দপুরে পৌর শহরের ব্যস্ততম এক সড়কের ওপর রাখা হয়েছে একটি ১১ হাজার ভোল্টের ভ্রাম্যমাণ বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার। পথচারীদের সতর্ক করার জন্য এটিতে ছোট্ট করে লেখা, ‘ডেঞ্জার, হাই ভোল্টেজ। ১১ হাজার ভোল্ট। বিপদজনক’। সতর্ক-কথা ছোট্ট করে লেখা থাকলেও বিপদ কিন্তু বড়। গত এক সপ্তাহ ধরে ভ্রাম্যমাণ ট্রান্সফরমারটি এভাবে রাস্তার ওপর রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শহরের ব্যস্ততম কিছুক্ষণ মোড় নামের এলাকার ট্রান্সফরমারটি গত এক সপ্তাহ আগে হঠাৎ বিকল হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় বিদ্যুৎ বিভাগ ওই ভ্রাম্যমাণ ট্রান্সফরমার বসিয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ সচল রাখে। ট্রান্সফরমারটি এভাবে রাখায় পথচারী ও যানবাহন চলাচলও ঝুঁকির মুখে পড়েছে। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে শত শত মানুষ ও যানবাহন চলাচল করে। এ ছাড়া ট্রান্সফরমারের কিছু দূরেই অবস্থিত তুলসিরাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মহিলা মহাবিদ্যালয়। এ দুই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীর প্রতিদিন এ ট্রান্সফরমারের পাশ দিয়েই যাতায়াত করে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কের ওপর বড় লোহার খাঁচা। খাঁচার ভেতরে ট্রান্সফরমার। এর পাশ দিয়ে যানবাহন চলছে। ট্রান্সফরমারের প্রায় গা ঘেঁষে চলছে পথচারীরাও। কয়েকজন শিশুকে ট্রান্সফরমারের পাশ ঘেঁষে বিদ্যালয় থেকে ফিরতে দেখা যায়। এসব শিশু জানিয়েছে, ট্রান্সফরমারের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় তাদের ভয় লাগে।

স্থানীয় বাসিন্দা মজিবর রহমান বলেন, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ এলাকার ছোট শিশুরা এ সড়ক দিয়ে যাতায়াতের সময় খেলার ছলে ট্রান্সফরমারের ভেতর হাত ঢুকিয়ে দিলে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। তাই দ্রæত ট্রান্সফরমারটি সরিয়ে ফেলা উচিত। তিনি আরও জানান, রাস্তায় ট্রান্সফরমারটি বসানোর সময় বিদ্যুৎ বিভাগ দুদিনের মধ্যেই বিকল হওয়া ট্রান্সফরমারটি মেরামত করা হবে বলে জানিয়েছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত তা করা হয়নি। বিকল হয়ে যাওয়া ট্রান্সফরমারটি মেরামত করে কবে নাগাদ পুনঃস্থাপন হবে, তা নিয়ে এলাকাবাসী অন্ধকারে। শেরে বাংলা সড়ক দিয়ে চলাচলকারী দুজন রিকশাচালক বলেন, ট্রান্সফরমারটি এখানে বেশি দিন থাকলে যেকোনো সময় সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে অথবা পথচারীরা দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে। এ ব্যাপারে সৈয়দপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া বলেন, দু-এক দিনের মধ্যেই নতুন ট্রান্সফরমার বৈদ্যুতিক খুঁটির ওপর বসানো হবে। তখন বিকল হয়ে যাওয়া পুরোনো ট্রান্সফরমারটির পাশাপাশি সড়কের ওপরে থাকা ভ্রাম্যমাণ ট্রান্সফরমারটিও সরিয়ে নেওয়া হবে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়