২৩ মাঘ, ১৪২৯ - ০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ - 06 February, 2023
amader protidin

ইউক্রেনকে পশ্চিমের সমর্থন বিশ্বকে ‘ভয়াবহ যুদ্ধের’ দিকে নিয়ে যেতে পারে, হুমকি রাশিয়ার

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
19


আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

রাশিয়া নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলগুলোকে হুমকির মুখে ফেলা কিয়েভকে সরবরাহ করা আক্রমণাত্মক অস্ত্র বিশ্বজুড়ে বিপর্যয় এবং গণবিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধে যুক্তিগুলোকে অসহনীয় করে তুলবে বলে মন্তব্য করেছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ একজন মিত্র। রোববার রাশিয়ার সংসদের নিম্নকক্ষ ‍ডুমার স্পিকার ব্যাচেস্লাভ ভোলোদিন এই মন্তব্য করেছেন।

রুশ সংসদের নিম্নকক্ষের এই স্পিকার ইউক্রেনকে যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সমর্থন বিশ্বকে ‘ভয়াবহ যুদ্ধের’ দিকে নিয়ে যেতে পারে বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে ভোলোদিন বলেছেন, যদি ওয়াশিংটন ও ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো অস্ত্র সরবরাহ করে এবং এসব অস্ত্র বেসামরিক শহরগুলোতে আক্রমণ ও আমাদের অঞ্চলগুলো দখলের চেষ্টা করার জন্য ব্যবহার করা হয়, তাহলে তা পরিস্থিতিকে আরও শক্তিশালী অস্ত্র ব্যবহারের মাধ্যমে প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থার দিকে নিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, পারমাণবিক শক্তিধর দেশগুলো অতীতে স্থানীয় সংঘাতে গণবিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহার করেনি এমন যুক্তি এখন অকার্যকর। কারণ এসব দেশ এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়নি, যেখানে তাদের নাগরিকদের নিরাপত্তা এবং দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডতার জন্য হুমকি ছিল।

গত সপ্তাহে ইউক্রেনের জন্য বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পশ্চিমা মিত্ররা। যদিও তারা জার্মানির তৈরি লেপার্ড যুদ্ধ ট্যাংক সরবরাহের বিষয়ে ভেটো প্রত্যাহারে জার্মানিকে রাজি করাতে ব্যর্থ হয়েছে। লেপার্ড যুদ্ধ ট্যাংক সরবরাহের বিষয়ে ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো রাজি হলেও ইউক্রেনে তা পাঠানোর জন্য বার্লিনের অনুমোদন প্রয়োজন।

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি আক্রমণ শুরুর পর ইউক্রেনের বেশ কিছু অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে রাশিয়া। পশ্চিমাদের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রাশিয়া লড়াই করছে যুক্তি দিয়ে বিভিন্ন সময়ে পারমাণবিক যুদ্ধের হুমকিও দিয়েছে দেশটি।

আর ইউক্রেনের দখলে নেওয়া ভূখণ্ড কখনই ফেরত দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে মস্কো। অন্যদিকে কিয়েভ বলেছে, ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতা পুনরুদ্ধার আলোচনার জন্য উন্মুক্ত নয়।

গত সপ্তাহে রাশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভের একই ধরনের হুমকির পর ভোলোদিন এসব মন্তব্য করলেন।

৫৮ বছর বয়সী ভোলোদিন ২০১৬ সাল থেকে রাশিয়ার সংসদের নিম্নকক্ষ স্টেট ডুমার স্পিকারের দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি দেশটির প্রেসিডেন্ট প্রশাসনে জ্যেষ্ঠ ভূমিকায় নিয়োজিত ছিলেন। পুতিনের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য হিসেবে প্রেসিডেন্টের কাছে তার নিয়মিত প্রবেশাধিকার রয়েছে।

ভোলোদিন বলেছেন, কিয়েভের প্রশাসনের কাছে আক্রমণাত্মক অস্ত্র সরবরাহ করা হলে তা বিশ্বজুড়ে বিপর্যয় ডেকে আনবে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়