বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১   Thursday, 24 June 2021.  



 রাজনীতি


আমাদের প্রতিদিন

 Jun-06-2021 08:22:10 PM


 

No image


ঢাকা অফিস:

ঐক্যবদ্ধ থেকে মহামারি করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ বিমসটেক নেতারা।

বঙ্গোপসাগরীয় অঞ্চলে বহুমাত্রিক প্রযুক্তিগত ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোটের (বিমসটেক) ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রোববার (০৬ জুন)  এ বার্তা দিয়েছেন তারা।

মহামারির কারণে ২০২০ সালের পর চলতি বছরও বসছে না জোটের সম্মেলন; হচ্ছে না কোনো আনুষ্ঠানিকতা।১৯৯৭ সালের ৬ জুন থাইল্যান্ডে এক বৈঠকে এ জোট গঠিত হয়। এর সদর দপ্তর ঢাকায়।

বিমসটেকের সদস্য রাষ্ট্রের সরকার ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বিবৃতিতে বলেন, ‘প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সহযোগিতামূলক সম্পর্কের ভিত্তিতে সমন্বিত অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের স্বপ্ন দেখেছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সে স্বপ্ন পূরণে আওয়ামী লীগ সরকারের মেয়াদে ১৯৯৭ সালে বিমসটেক ফোরামে যোগ দেয় বাংলাদেশ। তখন থেকেই বাংলাদেশ সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকারে পরিণত হয়েছে পররাষ্ট্রনীতি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘চলতি বছর জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে বাংলাদেশ। একই সঙ্গে বঙ্গোপসাগরীয় অঞ্চলে জীবনমান উন্নয়নে আরও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হয়েছি আমরা।’

বিমসটেকের সমন্বিত লক্ষ্য অর্জনে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার সময় এসেছে বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। আসন্ন পঞ্চম বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে জোটকে আরও শক্তিশালী করে তোলার ঘোষণাও দেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘বিমসটেকের কার্যপ্রক্রিয়ায় গতি আনতে প্রতিষ্ঠাতা সদস্য দেশ হিসেবে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ। আমি আশা করছি বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, কানেকটিভিটি, কৃষি, জ্বালানি, জনস্বাস্থ্য ও প্রযুক্তিসহ সব খাতে বিমসটেকের অধীনে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ আরও জোরদার হবে।’

করোনাভাইরাস মহামারি পরবর্তী সময়ে বহুমুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ হতে সদস্য দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘সংকটজনক এ সময়ে খাদ্য নিরাপত্তা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও দারিদ্র্য নির্মূলে বিমসটেকের এই মঞ্চকে ব্যবহার করতে পারি আমরা।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার বিবৃতিতে বলেন, ‘আমাদের সম্মিলিত ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটানোর মাধ্যম বিমসটেক। এ অঞ্চলের মানুষের সাধারণ স্বার্থ উদ্ধারে সম্ভাবনাময় এ জোট সদস্য রাষ্ট্রগুলোর কল্যাণে কাজ করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত কয়েক বছরে বিমসটেকের কাজ ও আঞ্চলিক সহযোগিতার পরিধি আরও বেড়েছে। পরিবহন সংযোগবিষয়ক বিমসটেকের মহাপরিকল্পনা ও বিমসটেক চার্টার চূড়ান্ত হয়েছে। এ অঞ্চলের সম্ভাবনাময় তরুণ উদ্যোক্তাদের সঙ্গে আলাপের সৌভাগ্যও হয়েছে আমার।’

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলা ইস্যুতে মোদি বলেন, ‘নজিরবিহীন এক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি আমরা। এই পরীক্ষার মধ্যে এলো বিমসটেক দিবস। মহামারি নিয়ন্ত্রণে এবং এর ভবিষ্যৎ প্রভাব ঠেকাতে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে হবে আমাদের।’

বঙ্গোপসাগরীয় অঞ্চলে শান্তি, সমৃদ্ধি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় বিমসটেকের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেছেন মোদি।

বিমসটেক দিবস উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা দিয়েছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটে শেরিং, নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলি, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে ও থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেনারেল (অব.) প্রায়ুত চান-ওচা।

খাতভিত্তিক আঞ্চলিক উন্নয়নে সহযোগিতামূলক এই জোটের সদস্য রাষ্ট্রগুলো হলো বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমার, ভুটান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও থাইল্যান্ড।

শুরুতে বাণিজ্য, প্রযুক্তি, জ্বালানি, পরিবহন, পর্যটন ও মৎস্য খাত উন্নয়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করে বিমসটেক। পরে ২০০৮ সালে কৃষি, জনস্বাস্থ্য, দারিদ্র্য নির্মূল, সন্ত্রাস নির্মূল, পরিবেশ, সংস্কৃতি, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ঠেকানোসহ নানা খাত যোগ হয় এ তালিকায়।



আজকের রংপুর


No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image






 

 

 

 

 

 
সম্পাদক ও প্রকাশক
মাহবুব রহমান
ইমেইল: mahabubt2003@yahoo.com