বুধবার, ৪ আগষ্ট ২০২১   Wednesday, 4 August 2021.  



 বাংলাদেশ


আমাদের প্রতিদিন

 Jul-20-2021 07:08:20 PM


 

No image


লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌরশহরে গভীর রাতে  এক লোকের দেখা মিলে রেলগেট এলাকায়।  লোকটি খড়ে খড়ে হাঁটছেন দেখে প্রথমে মনে হলো পলাতক কোন আসামী হতে পারে। একটু পর পাশের দোকানদার মাসুদ বলল, লোকটার বাড়ি দহগ্রামে। পাটগ্রাম হাসপাতালের ওদিক থেকে রেল লাইনের পাশ দিয়ে হেঁটে আসা লোকটা খুব ধীরগতিতে হেঁটে পাকা সড়কের উপর দিয়ে যখন রেল লাইন পার হয়ে গালামাল দোকানদার সুলতানের দোকানের সামনে ব্যাগটা রাখলেন। তখন তার কাছে গিয়ে শিকল কেন পা'য়ে? ছবি তোলার অনুমতি চাইলে বলেন তুলেন। ছবি তুলে তার কাছে জানতে চাওয়া হয় আপনার বাড়ী কি দহগ্রামে? জবাবে তিনি বললেন, আমার শ্বশুরবাড়ি দহগ্রামে। নিজের বাড়ি মুন্সিরহাট।

মুন্সীরহাট কোথায়? বেশ ভদ্র ভাষায় কথাবার্তা হচ্ছে। আবার জবাব দিলেন,তার বাড়ি মুন্সিরহাট জগতবেড় ইউনিয়নে। কবি বকুলের বাড়ির পাশে। বাবার নাম মোক্তার আলী।

মা- বাবা বেঁচে আছেন।

বললেন- হ্যাঁ। বউ বাচ্চা আছে কি'না জানতে চাইলে বলেন, বউয়ের নাম নুরজাহান। এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে। এত রাত বাড়ি যাবেন কেমনে? রিক্সা,ভ্যানও তো পাবেন না।

পা'য়ের শিকলটা খুলে দিলে না'কি বাড়ি যেতে পারবেন।

 সে কারণে পাটগ্রাম থানায় ফোন দেয়া হয়। ডিউটি অফিসার বলেন,বাজারে টহলগাড়ী ডিউটি অফিসারের সাথে কথা বলতে। কল করা হলো। ওপাশ থেকে তিনি বললেন, ওসি বা ডিউটি অফিসার যদি বলেন তবেই তিনি রেলগেট আসবেন।

 রাত তখন দুই- আড়াইটা।

পাঁচবার কথা বলা হয় তবুও  পুলিশ বিষয়টা আমলে নিলেন না।

এবার রবিউল বললেন, শিকলটা খুলে দেন।

বলা হয় একটু অপেক্ষা করেন পুলিশ আসবে।তখন তারা শিকল খুলে দিবে।

রেল লাইনের কাছে পাকা সড়কে বসে অপেক্ষায় থাকলেন রবিউল।

কিন্তু পুলিশ আসলেন না। আবার তাকে বলা হল- শিকল কে লাগিয়েছেন, কেন লাগিয়েছেন?

জবাবে বললেন,তার বাবা পায়ে শিকল লাগে দুটো তালাও লাগিয়ে দিয়েছেন। এ সময় রবিউল নিজে বললেন,বউ বাচ্চা সবাইকে মারপিট করি।খুব মারি। ওরাও আমাকে মারে।এমন নিষ্ঠুর বাবাকে শাস্তি দিতে চাইলে রবিউল বলেন,

 না' শাস্তি দেয়া যাবে না। বয়স্ক তো  কষ্ট পাবে। রাত ৩ টা'র সময় এ প্রতিবেদকের কাছে  রবিউলের শেষ দাবী ছিল পা'য়ের শিকলটা খুলে দেন। বাড়ি যাব। আইনী বেড়াজালে আটক এ প্রতিবেদক এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুর রহমান ও ওসি ওমর ফারুখের মোবাইলে সংযোগ মিলেনি।

সুস্থতার জন্য  রবিউলকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হোক। এ ব্যাপারে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ জরুরী বলে মনে করছেন অনেকে।



আজকের রংপুর


No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image
No image






 

 

 

 

 

 
সম্পাদক ও প্রকাশক
মাহবুব রহমান
ইমেইল: mahabubt2003@yahoo.com