হারাগাছে ভাতিজার ছুরি কাঘাতে চাচার মৃত্যু

আমাদের প্রতিদিন
2024-06-15 00:39:58

কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি:

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে আহত চাচা ময়নাল হক ( ৫২) মারা গেছে। আজ শুক্রবার (১৭ মার্চ) রংপুর শহরে বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহত ময়নাল হক উপজেলার হারাগাছ পৌরসভার সারাই বাবুখা গ্ৰামের মৃত আঃ রহমান (টাৎক্ত) শেখের ছেলে। বকেয়া টাকা না দেওয়াকে কেন্দ্র করে ভাই ও ভাতিজার ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন তিনি বলে পুলিশ জানিয়েছে। এ ঘটনায় রংপুর মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানায় মামলা হয়েছে।

মামলার বরাত দিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা ও উপপরিদর্শক এসআই কমল মোহন্ত জানান, হারাগাছ পৌরসভার বাবুখা গ্ৰামে একই এলাকায় বসবাস করেন ময়নাল হক ও তার ছোট ভাই মোঃ ইউনুছ আলী। দুই ভাইয়ের সারাই বাজারে মাংস বেচা বিক্রির দোকান আছে। ছোট ভাই ইউনুছ আলী গরু জবাই করে পাইকারি মাংস বিক্রি করেন। তার কাছে পাইকারি মাংস নিয়ে ময়নাল দোকানে বিক্রি করে আসছে। ব্যবসা চলাকালে ইউনুছ তার বড় ভাই ময়নালের কাছে কিছু টাকা পায়। গত বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকালে বকেয়া টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই ভাইয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। পরে ময়নাল বাড়িতে চলে যায়। এরই জের ধরে দুপুরে ছোট ভাই ইউনুছ আলী ও তার দুই ছেলে ইয়াসিন মিয়া এবং পারভেজ মিয়া একত্রিত হয়ে বাড়িতে ময়নালের উপর হামলা চালায় তাকে মারপিট করে। এক পর্যায়ে ইউনুছের ছেলে ইয়াসিন ধারালো ছুরি দিয়ে ময়নালের মাথায় আঘাত করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়নালকে প্রথমে হারাগাছ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায়  নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র (আইসিইউতে)নেওয়ার প্রয়োজন হয়। তবে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে বেড ফাঁকা না থাকায় ওইদিন রাতে বেসরকারি প্রাইম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র ভর্তি করা হয়। শুক্রবার (১৭ মার্চ) সকাল সোয়া ১১টায় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ময়নাল।  রংপুর মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রেজাউল করিম বলেন, মারামারির ঘটনায় গত  শনিবার (১১ মার্চ) ময়নালের ছেলে বাদী হয়ে ছোট চাচা, চাচী ও দুই চাচাতো ভাই সহ চারজনের নাম উল্লেখ করে হারাগাছ থানায় মামলা করেছেন। মামলা দায়ের পর পরই ওই দিন অভিযান চালিয়ে এজাহারে অভিযুক্ত তিন নাম্বার আসামি পারভেজকে গ্রেপ্তার করা হয়। আহত ময়নাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার মারা গেছে। মারপিটের মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রুপান্তরিত করা হবে। তিনি আরো বলেন, নিহতের মরাদেহ হাসপাতাল থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রক্রিয়া শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।