ভূরুঙ্গামারীতে রান্না ঘরের আগুনে পুড়ল প্রতিবন্ধীর স্বপ্ন

আমাদের প্রতিদিন
2024-05-24 08:27:08

ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে রান্না ঘরের আগুনে এক প্রতিবন্ধী ব্যক্তির স্বপ্ন পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

অগ্নিকান্ড একটি ষাঁড় গরু ও তিনটি টিনের ঘর পুড়ে গেছে।  বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের আসামপাড়া গ্রামের মৃত আবু বকর এর প্রতিবন্ধী পুত্র সেকেন্দার আলী (৫০) এর বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সত্রে জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সেকেন্দার আলীর স্ত্রী রান্না ঘরে দুপুরের খাবার রান্না করার সময় হঠাৎ ঘরে আগুন লাগে। প্রচণ্ড রোদে সেই আগুন দ্রæত ছড়িয়ে পড়ে পাশের ঘরে। বাড়ির লোকজনের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে আগুন নিভানোর চেষ্টা করে। পরে স্থানীয়রা নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসার আগেই প্রায় পোনে এক ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে এলাকাবাসী। ততক্ষণে বাড়ির রান্না ঘর, একটি গোয়াল ঘর ও একটি টিনের শয়ন ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সময় গোয়ালে থাকা একটি বড় ষাঁড় গরু আগুনে পুড়ে মারাত্মক ভাবে দগ্ধ হয়।

ক্ষতিগ্রস্ত সেকেন্দার আলী জানান, আমি একজন প্রতিবন্ধী ও নদী ভাঙা মানুষ। এর আগে আমি ইসলামপুর গ্রামে ছিলাম। দুধকুমার নদির ভাঙ্গনে ভিট মাটি হারিয়ে দুই বছর আগে এখানে বাড়ি করছি। ওই গরুটাই আমার এক মাত্র সম্বল ছিলো। গত মঙ্গলবার পাইকের এসে গরুটির দাম এক লাখ টাকা বলেছে। আমি কুরবানির ঈদে গরুটি বেচতে চাইছিলাম। আগুনে পুড়ে আমি নিঃস্ব হয়ে গেলাম। ইউপি সদস্য আবু সাদায়াত মোহাম্মদ বজলুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার ইমন মিয়া বলেন, দর্গম চরাঞ্চল হওয়ায় আমাদের টিম ঘটনাস্থলে পৌছতে একটু দেরি হয়। ফায়ার সার্ভিস পৌছানোর আগেই স্থানীয়রা আগুন নিভাতে সক্ষম হয়।