সাঘাটায় রাস্তার বেহাল অবস্থা জনদুর্ভোগ চরমে

আমাদের প্রতিদিন
2024-05-14 17:44:52

সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সাঘাটা বাজারের সাথে সংযোগ সবকয়টি রাস্তার বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। দীর্ঘদিন ধরে প্রশস্তকরণ ও সংস্কার অভাবে রাস্তা গুলোর এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। অনুপোযোগী এসব রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে জনসাধারণকে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ এসব যেন দেখার কেউ নেই।

খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, সাঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর সামনে হতে সাঘাটা বাজারের চৌ-মাথা হয়ে সাঘাটা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত, সাঘাটা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও মহিলা কলেজের পশ্চিম উত্তর পাশের মোড় হতে দ্বিজেন ডাক্তারের মোড় ও কাঁচাবাজার হয়ে সোনালী ব্যাংক পর্যন্ত এবং সাঘাটা থানার সামনে হতে সাঘাটা কেন্দ্রীয় মন্দির মোড়, মৌলভী বাজার মোড় হয়ে ধান ও মুরগির হাট পর্যন্ত রাস্তার এ চারটি  বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। এসব রাস্তায় প্রতিনিয়ত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী রোগীবাহী এ্যাম্বুলেন্স, থানা পুলিশের পিকআপ, হাট-বাজারের ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন মালবাহী ট্রাক, ঔষধের গাড়ী, কার্ভাড ভ্যান, নদীর বালুবাহী কাঁকড়া গাড়ী, যাত্রীবাহী মাইক্রো,কার, অটোরিক্সা, ভ্যান সহ অসংখ্য ছোট-বড় যানবাহন চলাচল করে এসব রাস্তায়। এছাড়াও সাঘাটায় অবস্থিত সাঘাটা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়,সাঘাটা ডিগ্রী কলেজ,বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিশুনিকেতন,আইডিয়াল স্কুল, হেডকোয়াটার দাখিল মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শতশত শিক্ষার্থী, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স  গামী চিকিৎসক, কর্মকর্তা,কমচারী সহ বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী ও প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা কর্মচারী,সাঘাটা হাট-বাজারের বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও হাজার হাজার হাটুরে লোকজন এসব রাস্তায় প্রতিনিয়ত চলাচল করে। এছাড়াও থানার রাস্তা দিয়ে সাঘাটা নৌ-ঘাট হয়ে প্রতিনিয়ত অসংখ্য লোকজন জামালপুর,মময়মনসিং ও রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে থাকে। এই সরু এ রাস্তাটির এক পাশ দিয়ে সাঘাটা বাজারের পানি নিষ্কাশনের ড্রেন তৈরীর সময় রাস্তা খোরাখুড়ির ফলে রাস্তা জুঁড়ে ছেট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। গর্তগুলো ভরাট ও মেরামত না করার দরুন সামান্য বৃষ্টি হলেই সব গুলো রাস্তায় পানি জমে কাদামাক্ত হয়ে চলাচলের জন্য অযোগ্য হয়ে পড়ে। শুধু তাই নয় ব্যস্ততম রাস্তা গুলো অত্যন্ত সরু হওয়ায় যানবাহ  ক্রসিং করা দুর্হ্যব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। এসময় রাস্তা দু’দিক থেকে যানবাহনের জ্যাম শুরু হয়। বিশেষ করে বাজারের চৌ-মাথার পরিস্থিতি সবচেয়ে করুণ হয়ে থাকে। সেখানে রাস্তার প্রশস্ত কম হওয়ায় চার দিক থেকে যানবাহ চলতে গিয়ে জ্যাম লাগে দীর্ঘ। 

এতে জনসাধারণকে দুর্ভোগ পোহাতে হয় চরমভাবে। বিশেষ করে পুলিশের পিকআপ ও হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স জরুরী ভাবে যাতায়াতে চরম ভাবে বিঘœ ঘটছে। একারণে পুলিশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষা ও জরুরী রোগী সুচিকিৎসার ব্যহত হচ্ছে বলে এলাকা বাসির অভিযোগ। অত্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা গুলোর বেহাল দশা ও জন দুর্ভোগ চরমে উঠলেও এসব যেন দেখার কেউ নেই। এলাকা বাসির অভিযোগ ভোট এলে জনপ্রতিধিরা এসে এসব রাস্তার উন্নয়নের প্রতিশ্রæতি দিলেও নির্বাচন চলে গেলে আর কেউ খোঁজ নিতে আসেন না।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইট জানান, অনেক দিন ঘোরাঘুরির পর বাজারের ড্রেনেজ ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়েছে । রাস্তার প্রশস্ত করণ ও মেরামত কাজের বরাদ্দ নেই । তবে বরাদ্দের জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। সাঘাটা উপজেলা প্রকৌশলী নয়ন রায় জানান, সাঘাটা বাজারের রাস্তা গুলোর বিষয়ে আমাদের জানা আছে এর উন্নয়ন কাজের অর্থ বরাদ্দের জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে বরাদ্দ পেলেই কাজ করা হবে।