দিনাজপুর সদর উপজেলার চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন জর্জিস সোহেল

আমাদের প্রতিদিন
2024-05-29 23:05:44

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুর সদর উপজেলার ১নং চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১১ হাজার ৯’শ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন আনারস মার্কার প্রার্থী মোঃ জর্জিস সোহেল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী চশমা মার্কার প্রার্থী মোঃ রেজাউল করিম রাকি পেয়েছেন ৭ হাজার ২০৩ ভোট।

দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন স্বাক্ষরিত ফলাফলে এ তথ্য জানাগেছে। এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে অন্য দুই প্রার্থী যথাক্রমে মোঃ আব্দুল হামিদ (অটোরিক্সা) ৩ হাজার ৬৩৩ ভোট এবং মোঃ রেজাউল ইসলাম রেজা (মটরসাইকেল) পেয়েছেন ২ হাজার ৮১৪ ভোট।

রোববার সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চেহেলগাজী ইউনিয়নের ১৭টি কেন্দ্রে এই ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। ভোটগ্রহন করা হয় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন—ইভিএম এর মাধ্যমে। এতে ৩৪ হাজার ৯৬৬ জন ভোটারের মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ২৫ হাজার ৬০৬ জন।

উল্লেখ্য, আদালতের স্থগিতাদেশ—এর কারনে দীর্ঘ ২ বছর ২ মাস পর পুণঃ তফশীল অনুযায়ী রোববার (৩১ মার্চ) অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুরের সদর উপজেলার ১নং চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহন।

দিনাজপুর সদর উপজেলার ১নং চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো ২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারী। কিন্তু ভোটগ্রহনের ১৪ ঘন্টা আগে আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারনে স্থগিত করা হয় এই নির্বাচন। 

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাযায়, ২০২২ সালে ষষ্ঠধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রাক্কালে মোকলেসুর রহমান নামে এক ব্যক্তি উচ্চ আদালতে এই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আনিছুর রহমান বাদশার বিরুদ্ধে ঋণ খেলাপির রিট করেন। ২০২২ সালের ১৮ জানুয়ারি মামলাটিতে সমন জারি হয় এবং ৩০ জানুয়ারি মামলাটি নিষ্পত্তি হয়। যার ফলাফলে আনিছুর রহমান বাদশাকে ঋণ খেলাপি সাব্যস্ত করে চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন চেয়ারম্যান পদের প্রার্থিতা বাতিলের আদেশ দেন আদালত। এই আদেশের ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণ করে আদালতের আদেশ কার্যকরে রিটকারী মোকলেসুর রহমান রিটানিং কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন স্থগিত করা হয়।

পরবর্তীতে আপিল বিভাগের গত ২০২৩ সালের ১৬ অক্টোবর—এর আদেশ মোতাবেক গত ২৭ ফেব্রুয়ারী চেহেলগাজী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পুনঃতফশীল ঘোষনা করে নির্বাচন কমিশন। এই তফশীল অনুযায়ী রোববার অনুষ্ঠিত হয় এই ভোটগ্রহন।