৬ শ্রাবণ, ১৪৩১ - ২২ জুলাই, ২০২৪ - 22 July, 2024
amader protidin

সাঘাটার হলদিয়া ইউপি’র ১২শ কেজি চাল উদ্ধার

আমাদের প্রতিদিন
10 months ago
276


সাঘাটা(গাইবান্ধা)প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন স্থানীয় মন্টু মিয়ার বাড়ী থেকে সরকারি জিআরের ১২শ কেজি চাল দুটি অটো ভ্যান যোগে কালোবাজারে পাচারের সময় সাঘাটা-জুমারবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের ডাকবাংলা বাজার এলাকায় আটক করে স্থানীয়রা।

পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে সাঘাটা থানা পুলিশ এসে চালসহ অটো ভ্যানদুটি জব্দ করে থানায় নিয়ে যায় ।  গত সোমবার বিকালে সাঘাটার ডাকবাংলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, সাঘাটা উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে বিতরনের জন্য সরকারি ভাবে ৬ মেট্রিক টন চাল বরাদ্ধ দেয়া হয়। গতকাল সোমবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত চাল বিতরন করা হয়। তবে এই চালবিতরনের সময় ইউনিয়ন পরিষদের একটি চক্র পরিষদ সংলগ্ন স্থাণীয় মন্টু মিয়ার বাড়ীতে সরকারি চালের বস্তা পরিবর্তন করে কালো বাজারে বিক্রি করতে দুটি অটো চালিত ভ্যান যোগে সাঘাটা-জুমারবাড়ী সড়কের ডাকবাংলাবাজার এলাকায় আসলে স্থানীয়রা চাল ভর্তি ভ্যান দু’টি আটক করে পুলিশকে খবর দেয়।

পরে পুলিশ এসে চালসহ ভ্যান দুটি জব্দ করে। এই বিষয়ে  হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়্যারম্যান রফিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে ফোন রিসিভ করেননি। বিষয়টি জানতে হলদিয়া ইউনিয়নের সরকারি চাল বিতরনের সময় সরকারি ভাবে নিযুক্ত তদারকি কর্মকর্তা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার সিদ্দিকুর রহমানের মুঠো ফোনে বারবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। সাঘাটা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মামুনুর রশিদ জানান,“ ভ্যানসহ ২৮/২৯ বস্তা চাল উদ্ধারের ঘটনায় আমি সরেজমিনে চাল গুলো পরিক্ষা করি। চাল সরকারি তবে বস্তা পরিবর্তন করা হয়েছে। চালগুলো থানায় জব্দ আছে।”সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাকিব হোসেন জানান,“দুটি অটো ভ্যানসহ ৩২ বস্তা চাল জদ্ব করা হয়েছে । এই বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।”এ বিষয়ে সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ইসাহাক আলী জানান,“বিষয়টি নিয়ে গতরাত থেকেই তদন্ত চলছে, উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা ও উপজেলা ভারপ্রাপ্ত খাদ্য কর্মকর্তাসহ আমি ঘটনটি তদন্ত করছি। তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিলসহ  ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।  

সর্বশেষ

জনপ্রিয়