১০ শ্রাবণ, ১৪৩১ - ২৬ জুলাই, ২০২৪ - 26 July, 2024
amader protidin

তারাগঞ্জের সয়ার ইউপিতে ভিজিডি কার্ডধারীদের থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

আমাদের প্রতিদিন
1 month ago
85


তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:

খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির ভিজিডি চাল বিতরনে কার্ডধারী ব্যক্তিদের কাছ থেকে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার সয়ার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) অর্থ আদায় করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ৩০ কেজি চাল বিতরনের বিপরীতে প্রত্যেক কার্ডধারী ব্যক্তির কাছে থেকে ২০ টাকা করে নেয়া হয়েছে। উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন মিলিয়ে ৩ হাজার ৭৯ জন দুস্থ মহিলা উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় কার্ডধারীকে বিনা মূল্যে প্রতিমাসে ৩০ কেজি করে ভিজিডি চাল দেয় সরকার। মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের তদারকিতে নিজ নিজ ইউপির তও¦াবধনে তালিকা তৈরি ও চাল বিতরন করা হয়। সয়ার ইউনিয়নে ৫৬৯ জন কার্ডধারি এ সুবিধা পান। সরকারি বিধানমতে, দুস্থ কার্ডধারীদের পরিবারের কাছ থেকে কোন অর্থ নেওয়ার বা ওজনে কম দেওয়া যাবেনা। তবে সয়ার ইউপির সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ সরকারি বিধি উপেক্ষা করে চাল বহন করার অজুহাতে কার্ডধারী দুস্থ ব্যক্তিদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ২০ টাকা করে নিয়েছেন। এতে সুবধাভোগীরা ক্ষুদ্ধ। গতকাল বুধবার (১২জুন) সয়ার ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিডির চাল নিতে আসা কাঙ্গলাচড়ার বেলা রানী, ফরিদাবাদের মরিয়ম বেগম, ডাঙ্গীরপারের স্বাপ্না রানী, পন্ডিতপাড়ার আনিকা রানী,দীঘলটারীর রত্না বেগম তারা সবাই জানান, দুই বস্তা করি চাউল নিনো বস্তার জন্য ২০ টাকা করে ৪০ টাকা দিবার নাগিল। টাকা ছাড়া চাউলের কার্ড হাতোতে নেয় না ওমরা। পরিষদের সচিব মতিনুর জামান মতিন বলেন, পরিষদে ভাই অনেক খরচ। তাছাড়া সব ইউনিয়ন পরিষদেই খরচের জন্য বস্তার টাকা নেয়। সয়ার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবাদত হোসেন পাইলট পরিষদে না থাকায় তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও মোবাইল রিচিভ না করায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী অফিসার (ইউএনও) মোঃ রুবেল রানার সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি বলেন, কার্ডধারী ব্যক্তিদের নিকট থেকে কোন টাকা নেয়া যাবে না। বিষয়টি দেখবো।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়