৬ শ্রাবণ, ১৪৩১ - ২১ জুলাই, ২০২৪ - 21 July, 2024
amader protidin

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে এইচ.এস.সি পরীক্ষার প্রথম দিনেই অনুপস্থিত ১০১৩ জন পরীক্ষার্থী

আমাদের প্রতিদিন
3 weeks ago
20


দিনাজপুর প্রতিনিধি:

এইচ.এস.সি (উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট) পরীক্ষার শুরুর দিনেই দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০৪টি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে আসেনি ১ হাজার ১৩ জন পরীক্ষার্থী। গতকাল রোববার (৩০ জুন) ২০২৪ সালের এই এস.এস.সি পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের উপ—পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ জহুরুল ইসলাম প্রামানিক স্বাক্ষরিত এক তথ্যে জানানো হয়, রোববার শুরুর দিনে অনুষ্ঠিত হয় বাংলা প্রথম পত্র বিষয়ের পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলায় মোট ২০৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ৯৯ হাজার ৩২ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উপস্থিত হয় ৯৮ হাজার ১৯ জন পরীক্ষার্থী। পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেনি ১ হাজার ১৩ জন পরীক্ষার্থী। এদের মধ্যে দিনাজপুর জেলার ৪৩টি কেন্দ্রে মোট ১৯ হাজার ৫৬৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ১৬৮ জন, ঠাকুরগাঁও জেলার ২০টি কেন্দ্রে মোট ৮ হাজার ৭৫৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ৯৫ জন, পঞ্চগড় জেলার ১২টি কেন্দ্রে মোট ৫ হাজার ৮৮৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ৮৯ জন, রংপুর জেলার ৪১টি কেন্দ্রে ২২ হাজার ৭৯৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ২’শ জন, গাইবান্ধা জেলার ৩০টি কেন্দ্রে মোট ১৪ হাজার ১৩৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ১৩৯ জন, নীলফামারী জেলার ২৪টি কেন্দ্রে মোট ১২ হাজার ১৪৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ১৩৩ জন, কুড়িগ্রাম জেলার ২৪ টি কেন্দ্রে মোট ৯ হাজার ৫৮৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ১১৪ জন এবং লালমনিরহাট জেলার ১০টি কেন্দ্রে মোট ৬ হাজার ১৫৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো ৭৫ জন পরীক্ষার্থী।

স্বাক্ষরিত তথ্যে উপ—পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ জহুরুল ইসলাম প্রামানিক আরও জানান, প্রথম দিনে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০৪টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এইচ.এস.সি পরীক্ষায় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি এবং কোন পরীক্ষার্থী এবং কক্ষ পরিদর্শক বহিস্কৃত হয়নি।

এদিকে পরীক্ষা শুরুর প্রথমদিনে দিনাজপুরের বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের  চেয়ারম্যান প্রফেসর স.ম. আব্দুস সামাদ। দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নকলমুক্ত পরিবেশ ও প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে সবরকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে ইতিমধ্যেই কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। প্রশ্নপত্র ফাঁসরোধে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধ ইফনিট তৎপর রয়েছে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়