৬ শ্রাবণ, ১৪৩১ - ২১ জুলাই, ২০২৪ - 21 July, 2024
amader protidin

গঙ্গাচড়ায় জমি দখলে নিতে মারপিটে ১ জন গুরুতর আহত, থানায় মামলা

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
60


গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধিঃ

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় ক্রয়কৃত জমি ভোগদখলীয় অবস্থায় ওই জমি দখলে নিতে জমির মালিককে মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা হলে পুলিশ একজনকে আটক করে। ঘটনাটি উপজেলার নোহালীর পশ্চিম কচুয়া এলাকায় ঘটে। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নোহালী ইউনিয়নের পশ্চিম কচুয়া এলাকার মৃত আকবর আলীর পুত্র ইছা আলীর স্ত্রী শিউলী বেগম একই এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর পুত্র সাইদুর রহমানের নিকট হতে পশ্চিম কচুয়া মৌজার জেএল নং -৪৭, এসএ খতিয়ান নং-২১১, দাগ নং-৩৯৫, আরএস খতিয়ান নং-৯৫৫, আরএস দাগ নং-৬৯৬, কবলা দলিল নং-৩৫৪১/২০, জমি ১৪ শতকের মধ্যে রাস্তা সংলগ্ন উত্তর পশ্চিম দিকে ৬ শতক জমি ক্রয় করে ২০২০ সালের ২৬ আগস্ট মাসে। তখন থেকে শিউলী বেগম ও তার স্বামী ভোগদখল করে আসছে। উক্ত জমি পশ্চিম কচুয়া এলাকার মৃত কানচিয়ার পুত্র মমিনুর রহমানসহ তার পুত্র শরিফুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, বাবলু মিয়া ও তার ভাই আমিন মিয়া, জামিনুর রহমান এবং মৃত ছাইদুর রহমানের পুত্র দুলাল মিয়া, মৃত রাজা মিয়ার পুত্র মোদাব্বের দখলে নেওয়ার জন্য রক্তক্ষয়ী সংসর্ঘে জড়াইলে ইছা আলী ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইন-২০২৩ এর ধারা মোতাবেক রংপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আমলী গংগাচড়া) আদালতে মামলা করেন। যার সি,আর মামলা নং-১৩৫/২৪, তারিখ-০২-০৫-২৪ খ্রীঃ। উক্ত মামলা আদালতে বিচাধীন থাকা অবস্থায় গত ৩০ জুন প্রতিপক্ষরা জোটবদ্ধ হইয়া ওই জমি আবার দখলে নিতে মাটি ভরাট করতে থাকে। এ সময় ইছা আলী বাধা প্রদান করিলে তাকে প্রতিপক্ষরা বিভিন্ন লাঠি-সোটা দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করিলে ইছা মিয়া মাথা ফেটে যায় এবং শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম হয়ে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় কয়েকজন এগিয়ে আহত অবস্থায় ইছা আলীকে তাদের কবল থেকে উদ্ধার করে গঙ্গাচড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করায়। ইছা আলী বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় ইছা আলী গঙ্গাচড়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-০৩, তারিখ-০২-০৭-২৪ ইং। পুলিশ মামলার ২ নং আসামী আরিফুল ইসলামকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়। ইছা আলী জানান, জমি দখলে নিতে তারা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং মারপিট করে। তারা গায়ের জোরে জমিতে একটি ঘর তুলেছে। আমি ন্যায় বিচার চাই। গঙ্গাচড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুমুর রহমান জানান, মামলা দায়ের পর মামলার আসামী আরিফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়