১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 23 February, 2024
amader protidin

অবশেষে দীর্ঘ অপেক্ষার পর চিলমারীবাসীর মাঝে আনন্দের জোয়ার বইছে

আমাদের প্রতিদিন
2 months ago
66


চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে বছরের পর বছর কেটে গেলেও কমেনি চিলমারীবাসীর দুর্ভোগ আর ভোগান্তি। দৈনিক মানবজমিন, আমাদের প্রতিদিনসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রচারের পর এলজিইডি’র মাধ্যমে সেই দুর্ভোগ আর ভোগান্তি দুরে ঠেলে দিয়ে দীর্ঘ অপেক্ষার পর আনন্দের স্বপ্ন দেখছেন চিলমারীর মানুষজন। গতকাল বুধবার (৬ই ডিসেম্বর) উদ্বোধনের মাধ্যমে সড়কের কাজ শুরু হয়েছে। নির্মিত এই সড়ক দুর করবে চিলমারীবাসীর ভোগান্তি আর চলাচলের আনবে প্রশান্তি এই যেন শ্লোগান এখন এলাকাবাসীর। উপজেলা চেয়ারম্যানের চেষ্টায় দীর্ঘ দিনের ভোগান্তি দুর হচ্ছে মন্তব্য করে সরকারকে ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় জনগণ।

জানা গেছে, কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার সদর থানাহাট বাজারে প্রবেশের প্রধান সড়কটি দীর্ঘ বছর থেকে অবহেলিত আর ভোগান্তির কারন হয়ে মৃত্যু ফাঁদে পরিনত হয়েছিল। বেশ কয়েকবার দুর্ভোগের এই সংবাদ ও প্রকাশ হয় বিভিন্ন পত্রিকায়। বছরের পর বছর থেকে লক্ষ লক্ষ মানুষ দুর্ভোগ মাথায় নিয়ে ঝুঁকি নিয়েই চলছিল। আর বৃষ্টি হলেও তো কথাই ছিল না, হাটু পানি আর কাদায় পুরো রাস্তা একাকার হয়ে যেত। অবশেষে দুর্ভোগ আর ভোগান্তি দুর করতে এলজিইডি দপ্তরের তত্বাবধানে, নাছিমা ট্রের্ডাস উলিপুর এর মাধ্যমে প্রায় ১কোটি ২৫ লক্ষ ৩হাজার ৯৭৭ টাকা ব্যায়ে উপজেলার এলএসডি মোড় থেকে সিনেমা হল মোড় পর্যন্ত আরসিসি এবং সিনেমা হল মোড় থেকে চিলমারীর সীমান্ত (সাদুল্লাহ) পর্যন্ত কার্পেটিং করা হবে। দীর্ঘ দিন পর ভোগান্তি আর দুর্ভোগ দুর করতে সড়কের কাজ শুরু হওয়ায় শান্তি ফিরে এসেছে বলেও মন্তব্য করেন স্থানীয় জনগণ। চিলমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর উদ্যোগে আজ আমরা চলাচলে আনন্দের স্বপ্ন দেখছি বলে জানান, এলাকার আমিনুল ইসলাম,  চন্দন চন্দ্র, জবাইদুল ইসলামসহ আরও অনেকে বলেন, এমন ভাবে সকল সড়কের কাজ করা হলে চিলমারীর উন্নয়ন হবে। উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ফিরোজুর রহমান বলেন, মানুষের দুর্ভোগ দুর করতে সরকারের সহযোগীতায় আমরা সকল অবহেলিত সড়কের কাজ করছি। বছরের পর বছর চলাচলের দুর্ভোগ ছিল স্বীকার করে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রুকুনুজ্জামান শাহিন বলেন, মানুষের ভোগান্তির দুর করতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সাথে বারবার যোগাযোগ করেছি, সড়কের কাজ শুরু হয়েছে এবং সিনেমা হল মোড় থেকে সন্তষ ডাক্তারের বাড়ীর মোড় পর্যন্ত রাস্তার ও টেন্ডার হয়েছে। মানুষের চলাচলের দুর্ভোগ যেন না থাকে এই জন্য সকল চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে, আশা করছি চলাচলের সকল সড়কের উন্নয়ন হবে। বুধবার সকালে সড়কের কাজের উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রুকুনুজ্জামান শাহিন ও উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ফিরোজুর রহমান। এ সময় এলজিইডি দপ্তরের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও স্থানীয় অনেক গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। এ দিকে দীর্ঘ দিন পর রাস্তার কাজ হওয়ায় আনন্দের জোয়ার বইছে চিলমারীবাসীর মাঝে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়