১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 22 February, 2024
amader protidin

নৌকা ও লাঙ্গলে ট্রাকের ধাক্কা

আমাদের প্রতিদিন
1 month ago
105


রংপুর-২ আসনে

প্রবীর কুমার কাঞ্চন, তারাগঞ্জ (রংপুর):

 রংপুর-২ (তারাগঞ্জ-বদরগঞ্জ) আসনটি বিগত বছর গুলোতে নৌকা ও লাঙ্গলের দখলে থাকলেও এবার  স্বতন্ত্র প্রার্থীর ট্রাকের ধাক্কা দেয়ার সম্ভবনা রয়েছে। রাত পোহালেই ভোট দুই উপজেলার সর্বত্র ভোটারের মাঝেই আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের যুগ্ন সম্পাদক কৃষিবিদ বিশ^নাথ সরকার বিটু। নৌকার প্রার্থী থাকলেও দুই উপজেলার বেশির ভাগ নেতাকর্মী বিটুর ট্রাকে উঠে বিভিন্ন পথ সভায় বক্তব্য রাখছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থীর ট্রাক প্রতীকের পক্ষে  বদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আজিজার রহমান, সাবেক দপ্তর সম্পাদক বিমলেন্দু সরকার, কৃষকলীগের  উপজেলা সভাপতি সুনীল চন্দ্র রায়, সাধারন সম্পাদক নুর আলম, রংপুর জেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য রাফিউর রহমান, রংপুর জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক প্রানকৃষ্ণ গোস্বমী, সদস্য সচিব সহিদুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সদস্য লুৎফর রহমান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি ও রংপুর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সদস্য সুমনা আক্তার লিলি, তারাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান লিটন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি জালাল উদ্দিন, আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা রবিউল ইসলাম রাসেল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আতিকুর রহমান আরোজ । আসনে নৌকা প্রার্থী টানা দুইবারের সংসদ সদস্য মো.আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক ও জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য আনিছুল ইসলামের সামনে শক্ত প্রতিদ্বদ্বী হিসাবে রয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের যুগ্ন সম্পাদক বিশ^নাথ সরকার বিটু। নির্বাচনী প্রচারনায় তিনি ও তার সমর্থকেরা সংসদ সদস্যের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতি, তৃনমূলের -নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করা বিষয়ে তুলে ধরছেন নির্বাচনী পথসভা গুলোতে। নৌকার প্রার্থী আহসানুল হক চৌধুরীর বিরুদ্ধে দুই উপজেলার আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মী ও প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থীরা তার বিভিন্ন অনিয়ম ও দুনীর্তির কথা তুলে ধরছেন। এর মধ্যে তারাগঞ্জ ও বদরগঞ্জ উপজেলায় টিআর-কাবিখা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগে ঘুষ গ্রহন, নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করা, এলাকায় না থাকা, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অবৈধ সুবিধা নিয়ে মনোনয়ন দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে নৌকার প্রার্থী আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক তার পরিবারিক কোন্দলের কারনে তার চাচা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাবলু চৌধুরী, জাহিদুল হক, ও চাচাত ভাই বদরগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি পলিন চৌধুরীকেও নৌকায় চড়াতে ব্যর্থ হয়েছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী বিশ^নাথ সরকার বিটু বরেণ, এমপি সাহেব উন্নয়নের নামে লুটপাট করায় দুই উপজেলার আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা নৌকায় না উঠে ট্রাকে উঠেছেন। লাঙ্গলের প্রার্থী সাবেক সংসদ আনিছুল ইসলাম বলেন, ভোট নিয়ে শঙ্কয় রয়েছি। কারন নৌকার প্রার্থী নিজের পছন্দের ব্যক্তিকে বদরগঞ্জ  থানায় রাখতে ১৫ দিনে ৩ বার ওসি বদল করিয়ে রেখেছেন। তিনি আরো অভিযোগ করেন, তার কর্মী- সমর্থকদের নানাভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে। নৌকার প্রার্থী আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক বলেন, তার জনপ্রিয়তা দুই উপজেলার ভোটারদের মধ্যে রয়েছে। এ জন্য প্রতিদ্বদ্বীরা অহেতুক কথা বলছে।  

 

 

    

সর্বশেষ

জনপ্রিয়