৯ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 21 February, 2024
amader protidin

পলাশবাড়ীতে অধিগ্রহনকৃত জমির অর্থ প্রদানের দাবীতে মানববন্ধন

আমাদের প্রতিদিন
1 month ago
156


পলাশবাড়ী(গাইবান্ধা)প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে সেটেল্টমেন্ট পরিচালিত চুড়ান্ত বিআরএস খতিয়ান প্রকাশ ব্যতিত এবং অধিগ্রহনকৃত জমির অর্থ প্রদান না করেই সড়ক বিভাগের নিকট জমি হস্তান্তর এবং স্ব-স্ব নিজ দখলীয় অবকাঠামো ভেঙ্গে নেয়ার মাইকিংয়ের প্রতিবাদে বিশাল এক মানববন্ধন

কর্মসূচি পালন করেছে এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিক ও ভাড়াটিয়ারা।  বৃহস্পতিবার(১১ জানুয়ারী)দুপুরে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী পৌরশহরের নুনিয়াগাড়ী মৌজার ভূক্ত-ভোগী ক্ষতিগ্রস্থ স্ব-স্ব জমির মালিক-দোকান মালিক, ব্যবসায়ী ও ভাড়াটিয়ারা গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সম্মুখে সমবেত হয়।এসময় ভূমি অধিগ্রহণ স্পর্শকাতর বিষয়টির প্রতিবাদে সমবেতরা এ মানব-বন্ধন কর্মসূচী পালন করে।

এতে বক্তব্য রাখেন আজিজার রহমান মোল্লা,সুরুজ হক লিটন,সুমন মোল্লা,মামুন মিয়া,রেজাউল করিম,খায়রুল ইসলাম,মামুন সরকার ও শাকিল মিয়া ছাড়াও ভুক্তভোগী ভূমি মালিকরা।

আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে সড়ক উন্নয়নের নামে সেটেল্টমেন্ট পরিচালিত চুড়ান্ত বিআরএস খতিয়ান প্রকাশ করা হয়নি।উপরন্ত অধিগ্রহনকৃত জমির অর্থ প্রদান না করেই সড়ক বিভাগের নিকট জমি হস্তান্তর এবং স্ব-স্ব দখলীয় অবকাঠামো ভেঙ্গে নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসন মাইকিং করে।

এতে ক্ষুব্ধ ভূক্তভোগী জমির মালিক তথা ব্যবহারকারী দখলীয়দের মাঝে নানা জল্পনা-কল্পনা ছাড়াও মিশ্রপ্রতিক্রিয়া সহ চরম অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে।

মানববন্ধন চলাকালে ভূক্তভোগী জমির মালিকরা আরও বলেন,অধিগ্রহনের সময় জমির মালিকদের মধ্যে যেসব ব্যক্তি-মালিক মোটাঅংকের উৎকোচ দিয়েছেন কেবলমাত্র তাদের জমির বিপরীতে ক্ষতি-পূরণের টাকা দেয়া হচ্ছে।আর যারা উৎকোচ দেয়নি

তাদের জমির প্রদেয় অর্থ দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ চরম গড়িমসি করছেন। ফলে বিক্ষুদ্ধ জমির মালিক ও ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ীসহ ভূক্তভোগিমহল এদিন মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেন।বিরাজমান সমস্যা নিরসনে মানবিক হস্তক্ষেপ কামনা করে জেলা প্রশাসক বরাবর নিকট একটি স্মারকলিপি দাখিল করা হয়।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়