৮ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 21 February, 2024
amader protidin

বিরলে ভোজ্য তেল উৎপাতদনে ব্যাপক সরিষা চাষ

আমাদের প্রতিদিন
4 weeks ago
79


বিরল (দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

সয়াবিন তেলের বিকল্প হিসাবে দেশে উৎপাদিত ভোজ্য তেল হিসেবে সরিষার তেলের ব্যবহার বেড়েছে। তাই দেশের অন্যান্য স্থানের ন্যায় বিরলেও সরিষার ব্যাপক আবাদ হয়েছে। এ কারণে গতবছরের তুলনায় ২৫৫ হেক্টর বেশি জমিতে বিভিন্ন জাতের সরিষা চাষ করেছে বিরলের কৃষকেরা। আর ক্ষেত খামারে এক অপরূপ শোভা ছড়াচ্ছে সরিষার ফুল। কৃষকরা জানালেন বতর্মানে সরিষার তেলের চাহিদা বেড়ে যাওয়া আর স্বল্প খরচে ও অল্প সময়ে ভাল ফলন হওয়ায় আগ্রহ বেড়েছে সরিষা চাষে।

বিরল উপজেলায় বিভিন্ন ইউনিয়নের মাঠ পর্যায়ে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন জাতের কোন কোন সরিষার গাছ দুই ফুট হতে প্রায় চার ফুট উঁচু সরিষা গাছে এখন ফুল ফুটেছে। হলুদ ফুলে ফুলে ভরে উঠেছে মাঠ। বাতাসে দোল খাচ্ছে ফুলে ভরা সরিষার গাছ। ভোজ্য তেল হিসাবে খাটি সরিষার তেলের চাহিদা বেড়েছে অনেক। উচ্চ ফলনশীল জাতের সহজ লভ্যতায় ফলনও ভাল হওয়ার আশা চাষীদের।

কয়েকজন সরিষা চাষী জানান, আমন ধান উঠার পরেই সরিষা চাষ করে বোরো ধান রোপনের আগেই কম সময়ে একটি বাড়তি ফসল আবাদ করা সম্ভব। সরিষা ঘরে তোলার পরেই বোরো ধান চাষে কোন সমস্যা নেই। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সরিষার বীজ বোপনের মাত্র ৮৫ থেকে ১০০  দিনের মধ্যে সরিষা গাছ তুলে ফেলা যায়। বিঘা প্রতি সরিষা চাষে ৬ থেকে ৮ হাজার টাকা খরচ হয়ে থাকে। বৈরী আবহাওয়া না হলে এই ফসলের ফলন বিঘা প্রতি ৫ থেকে ৬  মণ সরিষা ফলন পাওয়া যায়।

বিরল উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোস্তফা হাসান ইমাম জানান, গত রবি মৌসুমে এ উপজেলায় ২ হাজার ৩১০ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ করা হয়েছিল। দেশীয় বাজারের ভোজ্য তেলের দর বৃদ্ধিতে গতবারের অর্জিত সরিষার চাষ ছাড়িয়ে চলতি রবি মৌসুমে বিরল উপজেলায় ২ হাজার ৫৬৫ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ করেছে কৃষকেরা। গতবারের তুলনায় এবার বিরলে বেড়েছে সরিষার চাষ।

রবি মৌসুমের ফসল হিসাবে কৃষকের আগ্রহ বেড়েছে সরিষা চাষে। উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের প্রায় প্রতিটি মাঠেই এবার আবাদ বেড়েছে সরিষার। সার, ওষুধ, পানি ও অল্প পরিচর্যায় এবং সরকারি প্রণোদনা পাওয়ায় দিন দিন সরিষা আবাদে ঝুঁকছে চাষীরা। তিনি আরো বলেন, বিরল উপজেলায় ২ হাজার ৫৬৫ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে, কৃষকদের সার্বিক পরামর্শ প্রদান অব্যাহত আছে।

কৃষি অফিস আরও জানায়, সামনে আরো সরিষার উৎপাদন বৃদ্ধির বড় লক্ষ্য মাত্রা নিয়ে কাজ করছে, কৃষকদের অধিক ফলনশীল ও লাভজনক ফসল উৎপাদনে উদ্বুদ্ধ করা নিয়ে একযোগে কাজ করে হচ্ছে। উপজেলার বিভিন্ন মাঠে এক অপরূপ শোভা ছড়াচ্ছে সরিষা ফুলে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়