১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 23 February, 2024
amader protidin

রংপুরে মাসব্যাপী শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
113


নিজস্ব প্রতিবেদক:

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন, বর্তমানে আমরা সংকটময় সময় পার করছি, গত ৫ বছর ধরে এই অবস্থা। ২০১৮ সালের আগে আমরা ভালো সময় পার করেছি, মহামারী করোনার পর হতে বৈশ্বিক মন্দা চলছে। আমরা শেখ হাসিনার বদৌলতে সংকট নিরসন করতে পেরেছিলাম। এরপর আবার রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আমরা আবারো পিছিয়ে পড়েছি। সেখান হতে বের না হতেই এখন আবার মধ্যপ্রাচ্যের কারণে আমরা আবার চাপে পরেছি। যে কন্টিনেন্টের ভাড়া ২ হাজার ছিলো এখন সেই ভাড়া অনেক বেশী। তারপরেও এগিয়ে যাচ্ছি।

শনিবার বিকেলে রংপুর পুলিশ লাইন্স মাঠে রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি'র আয়োজনে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে চালের বাজারে পরিস্হিতি অনেক খারাপ। দারিদ্রতার জন্য সকলে আমাদের তিরস্কার করেছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সেটা থেকে বেরিয়ে এসে দেশকে বাচিয়েছে। শেখ হাসিনার জনা হতে আমরা বের হতে পেরেছি।

রংপর প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, রংপুর বিভাগ, মেট্রো, সিটি পেয়েছে। আগামীতে গ্যাসও আসবে। গ্যাসের অবস্হা প্রধানমন্ত্রী নিজে দেখে গেছেন। খালিদ মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী গ্যাস, বিদ্যুৎ, ট্রেন বিলাসবহুল বাসসহ সবখানে সর্বস্তরে উন্নয়ন করেছেন। রংপুরে ফোর-লেন রাস্তা হচ্ছে যা বাংলাবান্ধা গিয়ে শেষ হবে। তিস্তা মহাপরিকল্পনার কাজের কথাও প্রধানমন্ত্রী বলে গেছেন। ঘাঘটনদীর কাজও শুরু হবে একনেক বৈঠকে পাশ হয়েছে। এক সময় এদিকে চোরাচালানের কারবারী বেশী হতো প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় এখন তা আর নাই।

কল কারখানা তৈরির চাহিদা ছিলো এখন আর নেই। গ্যাসের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে কারখানার কাজ। এখন অনেক কল কারখানা নিয়ে আসছে কোম্পানিগুলো। আমাদের সাবেক বাণিজ্য মন্ত্রী  টিপু মুনশি সাহেব কল কারখানার জন্য কাজ করে গেছে এর ফল আমরা সামনে পাবো।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানুষের সক্ষমতা বেড়েছে। স্মাট বাংলাদেশের অঙ্গিকার নিয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। মানুষ কাঠামো করতে হবে। দক্ষ জনশক্তির মাধ্যমে আমরা এগিয়ে যাব। আমরা যোগ্য প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। তিনি যোগ্য পিতার যোগ্য সন্তান। বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান যেভাবে দেশকে নিয়ে ভাবতেন একই ভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ভাবেন।

অনুষ্ঠানে রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আকবর আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হাবিবুর রহমান, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মনিরুজ্জামান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান, পুলিশ সুপার রংপুর ফেরদৌস আলী চৌধুরী, রংপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রংপুর মহানগর শাখার আহ্বায়ক ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি আবুল কাশেম, আওয়ামীলীগ রংপুর জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক মাজেদ আলী বাবুল, যুগ্ন আহবায়ক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীন, রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মেলা পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আবু হেনা রেজওয়ানুল করিম প্রমূখ।

মাসব্যাপী মেলায় থাকছে ৭টি প্যাভিলিয়নসহ ১১০ টি স্টল। স্টল গুলোতে থাকছে নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পথ্য, প্রসাধনী, জুতা, খেলনা, ক্রোকারিজ, হস্তশিল্প, তাতের শাড়ী, থ্রিপিস, গার্মেন্টসপণ্যসহ হরেক রকমের সুস্বাদু খাবারের দোকান। মেলায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা উদ্যোক্তারা স্টলগুলোতে সাশ্রয়ী মূল্যে তাদের পণ্য সামগ্রী বিক্রয় করবে। শিল্প ও বাণিজ্য মেলা চলবে প্রতিদিন বেলা ১২ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত। দর্শণার্থীদের সুবিধার্থে মেলা প্রাঙ্গণে তৈরী করা হয়েছে অস্থায়ী নামাজ ঘর ও শৌচাগার।  

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন, বর্তমানে আমরা সংকটময় সময় পার করছি, গত ৫ বছর ধরে এই অবস্থা। ২০১৮ সালের আগে আমরা ভালো সময় পার করেছি, মহামারী করোনার পর হতে বৈশ্বিক মন্দা চলছে। আমরা শেখ হাসিনার বদৌলতে সংকট নিরসন করতে পেরেছিলাম। এরপর আবার রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে আমরা আবারো পিছিয়ে পড়েছি। সেখান হতে বের না হতেই এখন আবার মধ্যপ্রাচ্যের কারণে আমরা আবার চাপে পরেছি। যে কন্টিনেন্টের ভাড়া ২ হাজার ছিলো এখন সেই ভাড়া অনেক বেশী। তারপরেও এগিয়ে যাচ্ছি।

শনিবার বিকেলে রংপুর পুলিশ লাইন্স মাঠে রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি'র আয়োজনে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে চালের বাজারে পরিস্হিতি অনেক খারাপ। দারিদ্রতার জন্য সকলে আমাদের তিরস্কার করেছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সেটা থেকে বেরিয়ে এসে দেশকে বাচিয়েছে। শেখ হাসিনার জনা হতে আমরা বের হতে পেরেছি।

রংপর প্রসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী বলেন, রংপুর বিভাগ, মেট্রো, সিটি পেয়েছে। আগামীতে গ্যাসও আসবে। গ্যাসের অবস্হা প্রধানমন্ত্রী নিজে দেখে গেছেন। খালিদ মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী গ্যাস, বিদ্যুৎ, ট্রেন বিলাসবহুল বাসসহ সবখানে সর্বস্তরে উন্নয়ন করেছেন। রংপুরে ফোর-লেন রাস্তা হচ্ছে যা বাংলাবান্ধা গিয়ে শেষ হবে। তিস্তা মহাপরিকল্পনার কাজের কথাও প্রধানমন্ত্রী বলে গেছেন। ঘাঘটনদীর কাজও শুরু হবে একনেক বৈঠকে পাশ হয়েছে। এক সময় এদিকে চোরাচালানের কারবারী বেশী হতো প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় এখন তা আর নাই।

কল কারখানা তৈরির চাহিদা ছিলো এখন আর নেই। গ্যাসের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে কারখানার কাজ। এখন অনেক কল কারখানা নিয়ে আসছে কোম্পানিগুলো। আমাদের সাবেক বাণিজ্য মন্ত্রী  টিপু মুনশি সাহেব কল কারখানার জন্য কাজ করে গেছে এর ফল আমরা সামনে পাবো।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানুষের সক্ষমতা বেড়েছে। স্মাট বাংলাদেশের অঙ্গিকার নিয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। মানুষ কাঠামো করতে হবে। দক্ষ জনশক্তির মাধ্যমে আমরা এগিয়ে যাব। আমরা যোগ্য প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। তিনি যোগ্য পিতার যোগ্য সন্তান। বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান যেভাবে দেশকে নিয়ে ভাবতেন একই ভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ভাবেন।

অনুষ্ঠানে রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আকবর আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হাবিবুর রহমান, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মনিরুজ্জামান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান, পুলিশ সুপার রংপুর ফেরদৌস আলী চৌধুরী, রংপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রংপুর মহানগর শাখার আহ্বায়ক ডাঃ দেলোয়ার হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি আবুল কাশেম, আওয়ামীলীগ রংপুর জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক মাজেদ আলী বাবুল, যুগ্ন আহবায়ক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীন, রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মেলা পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আবু হেনা রেজওয়ানুল করিম প্রমূখ।

মাসব্যাপী মেলায় থাকছে ৭টি প্যাভিলিয়নসহ ১১০ টি স্টল। স্টল গুলোতে থাকছে নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পথ্য, প্রসাধনী, জুতা, খেলনা, ক্রোকারিজ, হস্তশিল্প, তাতের শাড়ী, থ্রিপিস, গার্মেন্টসপণ্যসহ হরেক রকমের সুস্বাদু খাবারের দোকান। মেলায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা উদ্যোক্তারা স্টলগুলোতে সাশ্রয়ী মূল্যে তাদের পণ্য সামগ্রী বিক্রয় করবে। শিল্প ও বাণিজ্য মেলা চলবে প্রতিদিন বেলা ১২ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত। দর্শণার্থীদের সুবিধার্থে মেলা প্রাঙ্গণে তৈরী করা হয়েছে অস্থায়ী নামাজ ঘর ও শৌচাগার।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়