১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০ - ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ - 29 February, 2024
amader protidin

হারাগাছে বিদ্যুতের কর্মীদের মারপিট ও,গাড়ী ভাংচুর, থানায় মামলা

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
182


কাউনিয়া(রংপুর)প্রতিনিধি: 

রংপুরের কাউনিয়ায় অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযানে বিদ্যুতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারপিট ও গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। উপজেলার হারাগাছ পৌরসভার কসাইটারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গতকাল বুধবার রাতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২ এর হারাগাছ জোনাল  অফিসের এজিএম ফারুক হোসেন বাদী হয়ে ৫০ জনের নামে  হারাগাছ থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানার ওসি হারিসুল ইসলাম।

মামলার বরাত দিয়ে তিনি বলেন,  মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে হারাগাছ জোনাল অফিসের এমজিএম মো: ফারুক হোসেনের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের আভিযানিক টিম উপজেলার হারাগাছ পৌরসভার কসাইটারী গ্রামে যায়। সেখানে তারা একটি অটো চার্জিং গ্যারেজে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ সনাক্ত করে। এসময় গ্যারেজের মালিক সোহেল মিয়া (২৭)  ও তার দুই  ভাই মোঃ সুজন মিয়া (৩০), মোঃ স্বপন মিয়া (২৫) সহ  আরো ৪০-৫০ জন একত্রিত হয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজনকে মারপিট এবং গাড়ি ভাঙচুর করে। আভিযানিক টিমের সদস্যদের তিনটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় তারা। মারপিটের ঘটনায় এমজিএম মো: ফারুক হোসেন, এনফোর্সমেন্ট কো-অর্ডিনেটর (ইসি) সঞ্জয় কুমার ঘোষ, লাইনম্যান মোঃ আমির হোসাইন, মোঃ মমিনুল ইসলাম ও গাড়ী চালক মিজানুর রহমান আহত হন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদেরকে উদ্ধার করে।

হারাগাছ জোনাল অফিসের ডিজিএম আরিফুল কবীর মুহাম্মদ শোয়ায়েব বলেন, অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা তাঁদের নিয়মিত অভিযান। কসাইটারী গ্রামে অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীরা পরিকল্পিতভাবে তাঁদের লোকজনকে মারধর এবং গাড়ী ভাংচুর করেছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তিনি। 

 রংপুর মেট্টোপলিটন হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: হারিসুল ইসলাম বলেন, পল্লী বিদ্যুতের কর্মীদের ওপর হামলা ও গাড়ী ভাংচুর ঘটনায় তিন জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত ৫০ জনের নামে মামলা  হয়েছে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়