১০ বৈশাখ, ১৪৩১ - ২৪ এপ্রিল, ২০২৪ - 24 April, 2024
amader protidin

সার্ভার জটিলতার দোহাই চিলমারীতে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন নিয়ে চরম ভোগান্তি

আমাদের প্রতিদিন
1 month ago
58


চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের সনদ পেতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সেবা প্রত্যাশিরা। অনলাইনে নিবন্ধন হওয়ার পর জন্ম ও মৃত্যু সনদ হাতে পেতে মাসের পর মাস অপেক্ষা করতে হচ্ছে গ্রাহকদের। ফলে গ্রাহকদের সাথে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কাজে সংশ্লিষ্টদের বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হে্চ্ছ প্রায়ই। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে নিয়োজিত উদ্যোক্তাদের দাবী সার্ভার জটিলতার কারণে গ্রাহকদের এমন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

জানা গেছে,উপজেলার ৬ইউনিয়নের উদ্যোক্তা এবং ইউপি সচিবদের মাধ্যমে শিশু থেকে বৃদ্ধ এবং মৃত ব্যাক্তিদের জন্য জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। সম্প্রতি সার্ভার জটিলতার কারনে জন্ম ও মৃত্যু সনদ নিতে চরম ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে। নিবন্ধনের পর সনদ হাতে পেতে মাসের পর মাস অপেক্ষা করতে হয় সেবা প্রত্যাশিদের। এ অবস্থায় অনেকেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি,জমি রেজিষ্ট্রি,পাসপোর্ট,অবসর ভাতাসহ বিভিন্ন কাজ করতে না পেরে চরমভাবে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। সেবা গ্রহীতা থানাহাট কলেজ মোড় এলাকার আব্দুর রহিম দুলাল ও লাকি বেগম জানান,মায়ের মৃত্যু নিবন্ধন সনদের জন্য সংশিষ্ট দপ্তরে ১মাস ধরে ঘুরছেন তারা। দিনের পর দিন সার্ভার জটিলতার কথা বলে ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে তাদের।বাবার মৃত্যু সনদের জন্য দুই মাস ধরে ঘোরার কথা জানান, উপজেলার গাবেরতল এলাকার এজিএম নিজামুল ইসলাম।

থানাহাট ইউনিয়ন পরিষদ উদ্যোক্তা মো.নুর আমিন বলেন,মৃত্যু নিবন্ধন করতে গেলে আগে ওই ব্যাক্তির জন্ম নিবন্ধন করতে হয়। কিন্তু সার্ভার জটিলতার কারনে নিবন্ধনের কাজ হচ্ছে না। ফলে সেবা নিতে আসা মানুষ প্রায়ই আমাদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ছে। রমনা মডেল ইউনিয়ন পরিষদ তথ্য সেবা কেন্দ্রের উদ্যোক্তা জাহাঙ্গীর আলম ভুটÍু জানান, সার্ভার জটিলতায় গত কয়েক মাস থেকে নিবন্ধনের কাজে ভোগান্তি দেখা দিয়েছে। খোজ নিয়ে জানা গেছে উপজেলার সব কটি ইউনিয়নেই নিবন্ধনের ক্ষেত্রে এমন জটিলতা বিরাজ করছে। উপজেলার ৬ইউনিয়নের তথ্য মোতাবেক সর্ভার জটিলতায় ৫শতাধিক নিবন্ধন আটকে আছে।

রমনা মডেল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম আশেক আকা জানান,বেশ কিছুদিন ধরে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন করতে গিয়ে সার্ভার জটিলতায় পড়তে হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে প্রায়ই বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে। এপর্যন্ত আমার ইউনিয়নে প্রায় দেড় শতাধিক কাজ আটকে আছে। সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অভিযোগ করেও কোন সুরাহা হচ্ছে না।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মিনহাজুল ইসলাম বলেন,জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের ক্ষেত্রে মাঝে মধ্যে সার্ভার জটিলতা দেখা দেয়,তবে তা স্থায়ী হওয়ার কথা নয়। নিবন্ধন নিতে যারা দীর্ঘ দিন ধরে ঘুরছেন তারা আমার কাছে আসলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা যাবে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়