১১ বৈশাখ, ১৪৩১ - ২৪ এপ্রিল, ২০২৪ - 24 April, 2024
amader protidin

ডোমারে শ্বশুরের বিরুদ্ধে ছেলের বউকে ধর্ষনের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

আমাদের প্রতিদিন
1 month ago
31


ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর ডোমারে শ্বশুরের বিরুদ্ধে ছেলের বউকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ডোমার থানায় গত সোমবার রাতে মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী ছেলের বউ। ঐদিন রাতেই শ্বশুর অনিলকে গ্রেফতার করেছে ডোমার থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার ১৯ মার্চ বিকালে আসামি অনিল চন্দ্র রায়কে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার চিকনমাটি দোলাপাড়ার লতা রানী রায়ের (ছদ্মনাম) (১৯) সাথে ২০২২ সালে প্রেম- ভালোবাসা সম্পর্ক করে একই উপজেলার মির্জাগঞ্জ হলহলিয়া গ্রামের অনিল চন্দ্র রায়ের পুত্র রনি চন্দ্র রায়ের (২০) এর সাথে হিন্দু সনাতণ ধর্মানুসারে  বিবাহ হয়। সেনেটারী মিস্ত্রী রনি কাজের সুত্রে প্রায় সময় বাড়ির বাহিরে থাকত।

গত ৭ই মার্চ স্বামী রনি কাজের সুত্রে বাহিরে অবস্থান করছিল। ওই দিন রনির মা লতার শ্বাশুড়ি বিবাহের দাওয়াত খাইতে মামা শ্বশুরের বাড়িতে অবস্থান করছিল। রাত আনুমানিক সাড়ে দশটার দিকে লতা রানী রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে পড়ে। রাত আনুমানিক ১১ টার দিকে লতা রানীকে বাড়িতে একা পেয়ে রনির বাবা লতার শ্বশুর অনিল চন্দ্র রায় (৫০) ঘরের ভিতরে কৌশলে হাত ঢুকাইয়া দরজা খুলে ঘরের ভীতরে প্রবেশ করলে শব্দ শুনে লতার ঘুম ভেঙে যায়। লতা চিৎকার করার চেষ্টা করলে তার শশুর মুখ চাপিয়া ধরিয়া চুপ থাকতে বলে। এ সময় বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে লতার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষন করে। এরপর লতাকে বাড়িতে একা পাইলেই শ্বশুর অনিল চন্দ্র রায় ধারাবাহিক ভাবে তাকে বিভিন্ন ধরনের কু- প্রস্তাব দেয়।

এমন অবস্থায় গত সোমবার রাতে ১৮  মার্চ ডোমার থানায় ২০০০ইং সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের (সংশোধনী/ ০৩)  ৯(১)ধারায় মামলা দায়ের করে। মামলা নম্বর ১০। সোমবার রাতেই আসামি অনিল চন্দ্র রায়কে ডোমার থানা পুলিশ গ্রেফতার করেন।

অনিলের গ্রেফতারের বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করেন ডোমার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সাঈদ চৌধুরী। তিনি বলেন আজ মঙ্গলবার অনিলকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়