৫ বৈশাখ, ১৪৩১ - ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ - 19 April, 2024
amader protidin

তারাগঞ্জে মাদ্রাসা পড়ুয়া কিশোরীকে অপহরণ করে ধর্ষন

আমাদের প্রতিদিন
3 weeks ago
133


তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:

রংপুরের তারাগঞ্জে মাদ্রাসায় পড়ুয়া ৯ম শ্রেনীর এক কিশোরীকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীর মা ঘটনার সঙ্গে অভিযুক্ত থাকার অভিযোগ এনে ধর্ষক মান্না মিয়াসহ ৩জনকে আসামী করে গত ১৯ মার্চ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার কুশার্ ইউনিয়নের রহিমাপুরের ওই মাদ্রাসা পড়–য়া শিক্ষার্থীর বাবা অসুস্থ থাকায় তার মা চাকুরির সুবাদে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে থাকেন। অসুস্থ বাবা ও ছো্ট্ট ভাই বোনদের নিয়ে ওই কিশোরী বাড়িতে থাকেন এবং মাদ্রাসায় পড়েন। ওই কিশোরী বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় আসার ও যাওয়ার পথে একই ইউনিয়নের রহিমপুর পাঠানপাড়া গ্রামের জসিম উদ্দিœ খানের বখাটে ছেলে মান্না মিয়া (২৪) বিভিন্ন ধরনের কু—প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। এতে ওই কিশোরী রাজি না হয়ে ঘটনাটি তার মাসহ পরিবারের লোকজনকে অবগত করেন। পরে কিশোরীর মা গত ১ ফেব্রুয়ারী অভিযুক্ত বখাটে মান্নাসহ তার পরিবারের লোকজনকে তার মেয়েকে যেন পরবতীর্তে উত্যক্তসহ কু—প্রস্তাব না দেয় এর জন্য নিষেধ করেন। এতে বখাটে ও তার পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। গত ১৮ মার্চ ওই কিশোরী নিজের শয়ন কক্ষে একাই ঘুমিয়ে পরলে রাত আনুমানিক ২টার সময় বখাটে মান্না ও তার বড়ভাই নুর আমিন (২৮) এবং নুর হোসেন খাঁন (২৯) শিক্ষার্থীর মুখ বেঁধে অপহরণ করে নিপু খাঁনের ইট ভাটায় নিয়ে যায়। ঘটনাটি কিশোরীর পরিবারের লোকজন টের পেয়ে গ্রামের লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে গভীর রাতে টর্চ লাইট নিয়ে অত্র এলাকার বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করতে থাকলে নিপু খানের ইট ভাটার পাশে তিস্তা ক্যানেলের উপরে ওই কিশোরীকে মুখ ও হাত বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করেন। পরে কিশোরীকে জিজ্ঞাসা করলে বখাটে মান্না তাকে অপহরণ করে নিয়ে এসে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করেছে বলে জানিয়ে বলেন, টর্চ লাইটের আলো ও লোকজনের শোরগোল দেখে তাকে রেখে আসামীরা পালিয়ে যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকতার্ এস আই তোহাকুল ইসলাম তোহা জানান, কিশোরীকে অপহরণ  ও ধর্ষনের ঘটনায় কিশোরীর মা অভিযুক্ত মান্না মিয়া সহ ৩জনকে আসামীকে করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে এবং আসামীদে গ্রেফতারের জন্য অভিযান পরিচালানা করা হচ্ছে।   

 

          

সর্বশেষ

জনপ্রিয়