১০ বৈশাখ, ১৪৩১ - ২৪ এপ্রিল, ২০২৪ - 24 April, 2024
amader protidin

শত্রুতা করে বোরো ফসল বিনষ্ট: কৃষক পরিবার সর্বশান্ত!

আমাদের প্রতিদিন
3 weeks ago
59


বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার শিমনা গ্রামে এক কৃষকের ৬০ শতাংশ বোরো জমির ধান গাছে প্রতিপক্ষরা আগাছা নাশক বিষ স্প্রে করায় ধান গাছের পাতা পুড়ে খেত বিনষ্ট হয়েছে। এতে ঐ কৃষক পরিবার সর্বশান্ত হয়ে পড়েছেন।

অভিযোগে প্রকাশ, নবাবগঞ্জ উপজেলার শিমনা গ্রামের নজমল হকের ছেলে নোমানুর রহমান নিজের সামান্য জমি আবাদ করে পরিবার চালান। একই গ্রামের ফুলচাঁনের ছেলে সোবাহান ও  সোবাহানের ছেলে সাইদুল এবং সলেমান নোমানুর রহমানের ভোগ দখলীয় জমি জোর পূর্বক জবর দখলের চেষ্টা করে আসছে। এরই ধারা বাহিকতায় প্রতিপক্ষরা ইতিপূর্বে নোমানুর রহমানের জমির ধান বিগত ৪ মৌসেুমও বিষাক্ত আগাছা নাশক স্প্রে করে সমুলে বিনষ্ট করে দিয়েছে। ফলস নষ্ট হওয়ায় কৃষক নোমানুর রহমান পরিবার নিয়ে মানবেতর ভাবে দিনাতিপাত করছেন। তিনি অনেক কষ্টে এবার অন্য ৬০ শতাংশ জমিতে ২৯ জাতের বোরো চারা রোপন করেন। সেই চারা পুষ্টতা পেয়ে শীষ আসার আগ মুহুর্তে গত ২৭ মার্চ রাতে প্রতিপক্ষরা আরো কয়েকজনকে সাথে নিয়ে বোরো খেতে বিষাক্ত আগাছা নাশক স্প্রে করে। এ ঘটনার প্রত্যক্ষদশীর্ গ্রামের আমিনুর রহমান ধান খেতে বিষ প্রয়োগ করতে দেখে প্রতিপক্ষ দূর্বৃত্তদের তাড়া করেছেন।  পরদিন দুপুর হতেই ধানের গাছ সব মরে গিয়ে হলুদ বর্ণ ধারণ করেছে। কষ্টের ফসল নষ্ট হওয়ায় পরিবারের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে কৃষক নোমানুর রহমান শোক—দুঃখে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছেন। ফসল ধ্বংসকারী দুবৃর্ত্তদের শাস্তির দাবিতে তিনি আসামীদের নাম উল্লেখ করে ২৯ মার্চ রাতে নবাবগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ তৌহিদুল ইসলাম জানান, জমির বোরো খেত নষ্ট করে দুবৃর্ত্তরা অমানবিক কাজ করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

 

 

 

 

      

সর্বশেষ

জনপ্রিয়