৩ বৈশাখ, ১৪৩১ - ১৬ এপ্রিল, ২০২৪ - 16 April, 2024
amader protidin

ব্রহ্মপুত্র নদে আড়াই মাস ধরে চিলমারী-রৌমারী ফেরি চলাচল বন্ধ

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
74


চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদে চিলমারী—রৌমারী নৌপথে আড়াই মাস ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। কুটিরচর এলাকায় পুরাতন বক্স কালভার্টটির বিকল্প রাস্তার কাজ শেষ না হওয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ রাখার কথা জানান বিআইডব্লিউটিসি কতৃর্পক্ষ। এদিকে দীর্ঘ প্রায় ৭৬দিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকলেও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের বিকল্প রাস্তা নির্মান কাজ চলছে ধির গতিতে বলে এলাকাবাসাীর অভিযোগ।

জানা গেছে,বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ—পরিবহন কতৃর্পক্ষ(বিআইডব্লিউএ)’র উদ্যোগে চিলমারী—রৌমারী নৌপথে দীর্ঘদিন ধরে নিয়মিত বিআইডব্লিউটিসি’র দুটি ফেরিতে পণ্যবাহীসহ বিভিন্ন প্রকার পরিবহন পারাপার করে আসছে। শুস্ক মৌসুমে ব্রহ্মপুত্রের পানি কমে যাওয়ায় নাব্যতা সংকট দেখা দেয়। নিয়মিত চ্যানেল খননের মাধ্যমে নাব্যতা সংকটকে অতিক্রম করে বিআইডব্লিউটিসি নিয়মিতভাবে ফেরিতে পণ্যবাহী গাড়ী পারাপার করে আসছিল।ফলে অতি অল্প সময়ে উত্তরাঞ্চলে পণ্যবাহী পরিবহনের জন্য এই রাস্তাটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।এই পথে প্রতিদিন ৩০—৪০টি পণ্যবাহী পরিবহন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত করছিল।

প্রায় আড়াই মাস পূর্বে রৌমারী ঘাট থেকে ২কি.মি.পরে কুটিরচর এলাকায় একটি পুরাতন বক্স কালভার্ট ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। ফলে ঝুকিপূর্ণ ওই কালভার্টটির জন্য গত ১৩জানুয়ারী থেকে চিলমারী—রৌমারী ঘাটে ফেরি পারাপার বন্ধ রাখা হয়েছে। দীর্ঘ সময় পরে কালভার্টের পাশ্ব দিয়ে বিকল্প রাস্তার কাজ শুরু করে এলজিইডি। দীর্ঘ ৭৬ দিনেও কালভার্টের বিকল্প রাস্তার কাজ সম্পন্ন না করায় ফেরি চলাচল বন্ধের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের গাফিলতিকে দায়ি করছেন ভূক্তভোগী ও এলাকাবাসী।এদিকে বেশীদিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকয় নদের খননকৃত চ্যানেল আপনা আপনি বন্ধ হয়ে গেছে বলে ধারনা করছেন অনেকে। বিকল্প রাস্তার কাজ শেষ হলে চ্যানেল নতুন করে খনন করতে হতে পারে বলে একটি সুত্র জানায়।

শনিবার দুপুরে চিলমারী বন্দর ঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়,দীর্ঘ আড়াই মাস ধরে ফেরি বন্ধ থাকায় রাস্তায় পণ্যবাহী কোন পরিবহন ফেরি পারাপারের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা যায়নি। এসময় মো.আলমগীর মিয়া,শফিকুল ইসলাম,মকবুল হোসেন,মিজান মিয়াসহ অনেকে জানান,দীর্ঘদিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় বর্তমানে এই পথে কোন পরিবহন আসছে না।

ফেরি কুঞ্জলতার মাষ্টার অফিসার রেজাউল করিম জানান,বিকল্প রাস্তার কাজ এখনও শেষ হয়নি। ব্রিজটির সমস্যা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ফেরি বন্ধ থাকার কথা জানান তিনি।  

ফেরি ঘাট ম্যানেজার(বাণিজ্য)প্রফুল্ল চৌহান জানান,ঝুকিপূর্ণ কালভার্টের পাশ দিয়ে বিকল্প রাস্তার কাজ চলমান রয়েছে। কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ফেরি চলাচলের কথা বলা যাবে না।

রৌমারী উপজেলা প্রকৌশলী মো.মনছুরুল হক জানান,কালভার্টটির ডাইভারসন রোডের কাজ প্রায় শেষের দিকে। আশা করছি আগামী রোববার নাগাদ কাজ শেষ হবে এবং সোমবার থেকে রাস্তা খুলে দেয়া যেতে পারে।

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়