৬ বৈশাখ, ১৪৩১ - ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ - 19 April, 2024
amader protidin

পলাশবাড়ীতে রোপনকৃত ধান প্রতিপক্ষ কর্তৃক কর্তন:থানায় এজাহার দাখিল

আমাদের প্রতিদিন
2 weeks ago
77


পলাশবাড়ী (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি :

পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর গ্রামে ভোগদখলকৃত জমিতে রোপনকৃত ধান সংঘবদ্ধভাবে কর্তন করেছে প্রতিপক্ষ। এবিষয়ে ৯জনকে অভিযুক্ত করে পলাশবাড়ী থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর স্ত্রী শাহনাজ পারভীন।

সরেজমিনে দেখা যায় অভিযুক্ত ৩৬ শতাংশ জমিটিতে আধা ফোলা ইরি ধান সমস্ত কর্তন করা হয়েছে। নামপ্রকাশ্যে অনিচ্ছুক অনেকেই জানান,পূর্ব হতেই শাহানাজ পারভিন এর পরিবার জমিটিতে চাষাবাদসহ ভোগদখল করে আসছে।

দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা যায়,গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর  ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের মৃত মাসুদুর রহমান মন্ডলের ছেলে মোঃ এটিএম মিজান ই এলাহী এর সাথে প্রতিবেশি মাজেদার রহমান দুলুগং এর সাথে দীর্ঘদিন হতে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে বিবাদ চলে আসছে। উক্ত জমিটিকে কেন্দ্র করে শাহানাজ পারভিন এর স্বামী ও সন্তানকে বিভিন্ন সময় ও তারিখে তিনটি মামলায় জড়িয়ে ফেলেছে প্রতিপক্ষ। এর ফলে স্বামী এটিএম মিজান ই এলাহীর অনুপস্থিতিতে-৩১ মার্চ সকালে মাজেদার রহমান দুলুর হুকুমে সংঘবদ্ধ একটি দল (যাহা এজাহারে উল্লেখ আছে) ৩৬ শতাংশ জমির ধান কর্তন করে নিয়ে যায়।ধান কর্তনের সময় শাহানাজ পারভিন বাঁধা দিলে তাকে বিভিন্ন প্রকার হুমকি-ধামকি সহ জানমালের বড় ধরনের ক্ষতিসাধন করিবে বলিয়া হুমকি প্রদান করে দমিয়ে রাখে প্রতিপক্ষরা।

এবিষয়ে অত্র ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুুল ওহাব প্রধান রিপন এ প্রতিবদেককে জানান,উঠতি ফসলী জমির ধান কর্তন করা মোটেও ঠিক হয়নি। ঘটনাটির সঠিক তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা দরকার।

এজাহারকারী শাহানাজ পারভিন বলেন,অভিযুক্ত মাজেদার রহমান দুলু আমার পরিবারের সকলকে ভিত্তিহীন মামলা দিয়ে দীর্ঘদিন হতে হয়রানী করে আসছে। প্রতিপক্ষের এহেন কর্মকাণ্ডে পরিবারকে নিয়ে প্রতিমুহূর্তে আমি আর্তঙ্কে দিনাতিপাত করছি। জমির ধানগাছ কর্তনকারীদের আইনের আওতায় নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছি।

এজাহার বিষয়ে পলাশবাড়ী থানা অফিসার ইনর্চাজ একেএম আজমিরুজ্জামান এর মুঠোফোনে নিশ্চিত করে বলেন,ঘটনাটি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়