১১ আষাঢ়, ১৪৩১ - ২৫ জুন, ২০২৪ - 25 June, 2024
amader protidin

ঘোড়াঘাটে গৃহবধূকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি ১৫ লক্ষ টাকা লুট

আমাদের প্রতিদিন
9 months ago
125


ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বাড়িতে প্রবেশ করে এক গৃহবধূর হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ১৫ লক্ষ টাকা লুট করেছে দূর্বৃত্তরা। গতকাল সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) আনুমানিক রাত ৮ টায় ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার লালমাটি শ্যামপুরে রফিজ উদ্দিনের ছোট ছেলে আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। তিনি উপজেলার ওসমানপুর বাজারের একজন মুদি ব্যবসায়ী।

জানা গেছে, আব্দুর রাজ্জাক তার স্ত্রী দোলেনা বেগমকে নিয়ে ওই বাড়িতে বসবাস করতো। আব্দুর রাজ্জাক প্রতিদিনের ন্যায় বাজারে গিয়ে দোকানদারি করছিলেন। এমতাবস্থায় সোমবার রাতে কালো পোশাকধারী ৪ জন ব্যক্তি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার বাড়িতে প্রবেশ করে। এ সময় আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী ছাড়া আর কেউ বাড়িতে ছিল না। দুর্বৃত্তরা ঘরে ভেতরে প্রবেশ করে প্রথমে গৃহবধূর মুখ চেপে ধরে মুখের ভেতর কাপড় গুঁজে দিয়ে তার ব্যবহৃত ওড়না দিয়ে শক্তকরে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জমি ক্রয় বাবদ ঘরের ওয়ারড্রবের ড্রয়ারে মজুদ রাখা নগদ ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।  এ বিষয়ে ভুক্তভোগী গৃহবধূ দোলেনা বেগম জানান, ঘটনার সময় বিদ্যুৎ ছিল না। আমার পেটে ব্যথা হওয়ায় ঘরে শুয়ে ছিলাম। এ সময় বাড়িতে মানুষ প্রবেশের শব্দ পেয়ে উঠে দরজার কাছে যেতেই অন্ধকারের মধ্যে কয়েকজন আমার মুখ চেপে ধরে। তখন আর কথা বলতে পারছিলাম না। এরপর ঘরে থাকা আমার ব্যবহৃত ওড়না দিয়ে শক্তকরে হাত-পা বেঁধে ফেলে।  আমি ৪ জন লোককে দেখেছি তবে তাদের মুখ সহ সারা শরীর কালো কাপড় দিয়ে ঢাকা থাকায় কাউকে চিনতে পারিনি। ঘটনার প্রায় ত্রিশ মিনিট অতিবাহিত হওয়ার পর আমার স্বামীর বড় ভাইয়ের স্ত্রী ছেতারা বেগম আমার খোঁজ করতে এসে আমার এ অবস্থা দেখে পরিবারের সবাইকে খবর দেয়। ভুক্তভোগী গৃহবধূর স্বামী আব্দুর আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমি জমি ক্রয়ের জন্য এনজিও (ব্যাংক) কতৃক ১০ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়েছি। গতকাল ২ টি গরু বিক্রি করে ও ব্যবসার নগদ অর্থ সহ মোট ১৫ লক্ষ টাকা প্রস্তুত করে রেখেছিলাম। যা বুধবার ঘোড়াঘাট সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসে বায়নাকৃত জমির দলিল হওয়ার কথা ছিল। ঘটনার পর খবর পেয়ে ব্যবসার কাজে দোকানে ছিলাম। এ ঘটনার ঘন্টাখানেক পর বাড়িতে এসে দেখি আমার সব শেষ হয়ে গেছে। আমি নিঃস্ব হয়ে গেলাম। আমি এখন এত টাকা ঋণ কিভাবে শোধ করবো! এ ব্যাপারে ঘোড়াঘাট-হাকিমপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শরিফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘোড়াঘাট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে। যেই অপরাধ করুক না কেন তার কোন ছাড় নেই। বিষয়টি তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়