৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ - ১৯ মে, ২০২৪ - 19 May, 2024
amader protidin

রেলের ভাড়া বৃদ্ধিও প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন

আমাদের প্রতিদিন
3 weeks ago
30


কুড়িগ্রাম  অফিস:

রেলের ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় কুড়িগ্রাম রেল স্টেশনে এ মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করে জেলার রেল—নৌ, যোগাযোগ ও পরিবেশ উন্নয়ন গণকমিটি।

এ সময় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ সভাপতি প্রভাষক আব্দুল কাদের, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সাবেক সভাপতি কলামিস্ট নাহিদ হাসান, জেলা কমিটির সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার আরিফ, চাষী নুরন্নবী সরকার, আব্দুল গফুর, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, দরিদ্রতম ও সীমান্তবতীর্ জেলা হিসেবে কুড়িগ্রামবাসীকে একদিকে রাজধানীর সাথে দূরত্বের কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে অন্যদিকে এখন থেকে বাড়তি ভাড়াও গুণতে হবে তাদের। পুরো রংপুর বিভাগকে নাটোর, চাটমোহর ঘুরে আসতে হয়। বগুড়া—সিরাজগঞ্জ লাইন চালু হলে কমে আসতো বাড়তি ১২২ কিলোমিটার পথ। অথচ মুক্তিযুদ্ধের কাংখিত ছিল শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের সাথে যোগাযোগ ফ্রী হওয়ার। এই অবস্থায় ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো অযৌক্তিক মনে করে বাড়তি ভাড়া প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা।

তারা আরো দাবী করেন, দরিদ্রতম জেলা হিসাবে কুড়িগ্রামবাসী রাজধানীর সাথে একদিকে দূরত্বেও কারণে ভুগছে। এখন থেকে ভাড়াও বাড়তি দিতে হবে। মালামাল পরিবহন ও গোডাউনের সাথে রেল বিচ্ছিন্ন কেও রেলকে লেঅকসানী খাতে পরিণত করা হয়েছে। ৫ হাজার টাকার বাতি ২৭ হাজার টাকায় কিনেছে রেল আর তার দায় চাপানো হচ্ছে জনগণের ওপর। বিগত বছরের আয় ব্যয়ের হিসাব, মালামাল ক্রয়ের তালিকা প্রকাশ করতে হবে। তারপর ভাড়া বৃদ্ধি করা হবে কিনা, সিদ্ধান্ত নেয়া হোক।

সহজ—সিনেসিস—ভিনসেন জেভি ও রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা—কুড়িগ্রাম রুটে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনে শোভন চেয়ার ও এসি চেয়ার (স্নিগ্ধা) শ্রেণির ভাড়া ৫১০ ও ৯৭২ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে যথাক্রমে ৬৪৫ ও ১২৩৭ টাকা করা হয়েছে।

অন্যদিকে ঢাকা—রংপুর রুটে রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনে শোভন চেয়ার ও এসি চেয়ার (স্নিগ্ধা) শ্রেণির ভাড়া ৫০৫ ও ৯৬৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে যথাক্রমে ৬৩৫ ও ১২১৪ টাকা। ঢাকা—চিলাহাটি রুটে চিলাহাটি এক্সপ্রেস ট্রেনে শোভন চেয়ার ও এসি চেয়ার (স্নিগ্ধা) শ্রেণির ভাড়া ৪৯৫ ও ৯৪৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে যথাক্রমে ৬২০ ও ১১৮৫ টাকা।

আগামী ৪ মে থেকে কার্যকর হবে ট্রেনের বাড়তি ভাড়া।

উল্লেখ্য, গত ২২ এপ্রিল এক গণবিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ রেলওয়ে জানিয়েছে, ১৯৯২ সালে বাংলাদেশ রেলওয়েতে দূরত্বভিত্তিক ও সেকশনভিত্তিক রেয়াতি দেওয়া হয়। ২০১২ সালে ‘সেকশনাল রেয়াত’ বাতিল করা হলেও দূরত্বভিত্তিক রেয়াত বলবৎ থাকে। স¤প্রতি বাংলাদেশ রেলওয়েতে যাত্রীবাহী ট্রেনগুলোতে ভাড়া বৃদ্ধি না করে শুধু বিদ্যমান দূরত্বভিত্তিক রেয়াত প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তার পরিপ্রেক্ষিতে সব ধরনের যাত্রীবাহী ট্রেনে বিদ্যমান দূরত্বভিত্তিক রেয়াত প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তটি আগামী ৪ মে থেকে কার্যকর করা হবে।

 

 

 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়