১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ - ২৬ মে, ২০২৪ - 26 May, 2024
amader protidin

পীরগঞ্জে টিউবওয়েল এর পানি সংকট

আমাদের প্রতিদিন
1 year ago
81


পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:     

রংপুরে পীরগঞ্জে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট দেখা দিয়েছে। ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় বেশ কিছু টিউবওয়েল  অকেজো হয়ে পড়েছে এছাড়াও খাল-বিল, নদী-নালা, পুকুরের পানি শুকিয়ে গেছে। ফলে খাবার পানি সেচ পাম্প বা গভীর নলকূপ গুলো থেকে সংগ্রহ করতে হচ্ছে।

উপজেলার চৈত্রকোল,ভেন্ডাবাড়ী, গুর্জীপাড়া,কুমেদপুর, মদনখালী, টুকুরিয়া, বড় আলমপুর, রায়পুর, পীরগঞ্জ, শানেরহাট, পাঁচগাছি, মিঠিপুর,রামনাথপুর, চতরা,কাবিলপুর ইউনিয়নের বেশ কিছু গ্রামের হাজারোও নলকূপের পানি সংকট দেখা দিয়েছে। এ-সব এলাকার হ্যান্ড টিউবওয়েল গুলো থেকে পানি উঠছে কম দিনদিন চাপ বাড়ছে।

উপজেলার চতরা এলাকার শমসের পাড়া গ্রামের জাহেদ আলী, মুনছুর আলী, মান্নান মিয়া বলেন, বাড়িতে টিউবওয়েল এর পানি শুকিয়ে গেছে। তাই কৃষি আবাদি জমির পাশে গভীর নলকূপ থেকে পানি আনতে হচ্ছে। হ্যান্ড টিউবওয়েল গুলোতে অনেকেই ছোট ছোট মোটর বা পাম্প লাগিয়ে পানি উত্তলন করা হতো  এখন সেই পাম্পেও পানি নেই।

কাঙ্গুর পাড়া গ্রামের আদিবাসী পাড়ার বুড়ি মার্ডী বলেন, কোনো কোনো দিন রাতের বেলায় সামান্য করে পানি পাওয়া যায়। দিনের বেলায় তাও পাওয়া যায় না।

কাটাদুয়ার গ্রামের শাহাদাৎ হোসেন বলেন, তিনি দীর্ঘদিন আগে তার বাড়িতে একটি টিউবওয়েল স্থাপন করে খাবার পানিসহ নানান কাজে ব্যবহার করে আসছেন। গত ১ মাস থেকে তার অই টিউবওয়েল এ পানি মিলছে না। যে কারনে তার পরিবারের লোকজন খাবার পানি সংকটে ভুগছেন বলে তিনি জানান। আজ বুধবার সরেজমিনে কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার কিছু স্থানে হ্যান্ড টিউবওয়েল এ পানি সংকট দেখা দিয়েছে। ভূ-গর্ভস্থ পানি নিচে নেমে যাওয়ায় কারণে এসব টিউবওয়েল গুলো পানি শূন্যতায় ভুগছে। লোকজন কৃষি আবাদি জমির গভীর নলকূপ বা সেচ পাম্পগুলোসহ দূরদূরান্ত থেকে পানি সংগ্রহ করে রান্নাবান্না সহ সকল কাজে যোগান দিয়ে আসছেন। তবে চতরা এলাকায় বেশ কিছু টিউবওয়েল  অকেজো হয়ে পড়েছে।

অধিকাংশ লোকজন বলছেন, জলবায়ূ পরিবর্তনের প্রভাবে প্রতি বছর শুষ্ক মৌসুমে ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় পানির তীব্র সংকট দেখা দিচ্ছে।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ‘ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর প্রায় ১শ’ ২০ফুট নিচে নেমে যাওয়ার ফলে পীরগঞ্জ উপজেলার কিছু স্থানে পানির সংকট আকার ধারণ করেছে।

চৈত্রকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফুজ্জামান শাহ্ বলেন, খাড়ার মৌসুমে টিউবওয়েল গুলোতে পানি কম উঠছে। বৃষ্টি বাদল নামলেই পানির চাপ কমে যাবে।

পীরগঞ্জ উপজেলা জনস্বাস্থ্য সহকারী  প্রকৌশলী জিয়াউল হক সরকার পানি সংকটের কথা স্বীকার করে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বৃষ্টির পানি নেই, যে কারনে উপজেলার চতরা ইউনিয়নের কিছু জায়গায় টিউবওয়েল এর পানি সংকট দেখা দিয়েছে। তবে মিঠাপুকুর উপজেলার তীব্র পানির সংকট। বৃষ্টির পানি হলে টিউবওয়েল গুলোর পানির সমস্যা সমাধান হবে বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়